রেশন কার্ড আধার লিংক চেক | রেশন কার্ড কেওয়াইসি

রেশন কার্ড যে একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ নথি তা আমরা সকলেই জানি, যা শুধুমাত্র বিনামূল্যের রেশন সুবিধা পাওয়ার জন্যই নয়, এটি একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ পরিচয়ের নথিও বটে। বর্তমানে এই রেশন কার্ডের নথি যাচাইকরণের দিকে নজর দিয়েছে ভারত সরকার, তাই এখন রেশন কার্ডের ই-কেওয়াইসি করা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। 

প্রত্যেক রেশন কার্ডধারীদের উচিৎ যত তাড়াতাড়ি সম্ভব ই-কেওয়াইসি করে নেওয়া, অন্যথা রেশন কার্ডের সুবিধা থেকে গ্রাহক বঞ্চিত হবেন এবং রেশন কার্ডটিও বাতিল করা হতে পারে। ২০১৪ সাল থেকে এখন পর্যন্ত সমস্ত রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলি মিলিয়ে মোট ৪.৫ কোটি রেশন কার্ড বাতিল করা হয়েছে।

আপনি অনলাইন পোর্টাল থেকে খুব সহজেই ই-কেওয়াইসি বা আধার লিংক করে নিতে পারবেন। এই নিবন্ধে রেশন কার্ডের ই-কেওয়াইসি পদ্ধতি সম্মন্ধে বিস্তারিত তথ্য দেওয়া হল।

রেশন কার্ড আধার লিংক বা ই-কেওয়াইসি কি?

রেশন কার্ড ই-কেওয়াইসি হল একটি ডিজিটাল যাচাইকরণ প্রক্রিয়া, যার মাধ্যমে কার্ডধারকদের সত্যতা যাচাই করা হয়ে থাকে। এটি প্রথাগত কেওয়াইসি -এর মতো এত সময়সাপেক্ষ পদ্ধতিতে করা হয় না। এক্ষেত্রে রেকর্ড রাখার জন্য একটি ডিজিটাল ডেটাবেস এবং বায়োমেট্রিক ডেটা ব্যবহার করা হয়ে থাকে, যাতে দ্রুত রেকর্ড রক্ষা ও যাচাইকরনের কাজটি হতে পারে।

রেশন কার্ড ই-কেওয়াইসি করার জন্য আপনাকে রেশন কার্ডের সাথে আধার লিঙ্ক করাতে হবে, যার পদ্ধতিটি নিচে উল্লেখ করা হয়েছে অথবা আপনি ভিডিও রেফারেন্স রেশন কার্ড ই-কেওয়াইসি দেখে সহজেই লিংক করে নিতে পারবেন।

রেশন কার্ড আধার লিংক চেক

রেশন কার্ড কেওয়াইসি কেন?

‘খাদ্য ও সরবরাহ এবং উপভোক্তা বিষয়ক বিভাগ’ দ্বারা পরিচালিত এই রেশন কার্ডের মাধ্যমে দেশের নাগরিকদের বিনামূল্যে রেশন সুবিধা প্রদান করা হয়ে থাকে। তবে বহু জায়গায় দেখা গেছে যে মৃতদের নামে বা বহিরাগতদেরও এই রেশন কার্ড উপলব্ধ আছে। 

সরকার তাই সঠিক রেশন কার্ডধারকদের চিহ্নিত করা উদ্দেশ্যেই ই-কেওয়াইসি বাধ্যতামূলক করেছে, যেখানে পরিবারের সকল সদস্যেরই রেশন কার্ড ই-কেওয়াইসি করাতে হবে, যাতে বহিরাগত ও মৃত ব্যক্তিদের নাম মুছে ফেলে শুধুমাত্র যোগ্যদেরই এই রেশন সুবিধা উপলব্ধ করান যায়।

রেশন কার্ড কেওয়াইসি সুবিধা

রেশন কার্ডের কেওয়াইসি করার মাধ্যমে নিম্নলিখিত সুবিধাগুলি পাওয়া যাবেঃ

জালিয়াতি এবং নকল ধরাঃ

রেশন কার্ডের জালিয়াতি ও নকল যত বেড়েছে সরকারকেও যাচাইকরণের দিকে তত নজর দিতে হয়েছে।

পাবলিক ডিস্ট্রিবিউশন সিস্টেমের অন্যতম প্রধান কাজ হল এই ডুপ্লিকেট এবং জালিয়াতি রেশন কার্ডগুলিকে শনাক্ত করা। তাই রেশন কার্ড ই-কেওয়াইসি করার মাধ্যমে এই সমস্যা দূর করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

স্বচ্ছতা বজায় রাখাঃ

সারা ভারতে প্রায় ৮০ কোটি রেশনকার্ড হোল্ডার রয়েছেন। এই বিপুল সংখ্যক রেকর্ড সংরক্ষণ ও পরিচালনা করার ক্ষেত্রে ডিজিটাল মাধ্যমই হল সবচেয়ে সহজ এবং নির্ভরযোগ্য উপায়। রেশন কার্ড ই-কেওয়াইসি এর মাধ্যমে আধার যুক্ত হওয়ার ফলে সমস্ত প্রক্রিয়াটিতেই স্বচ্ছতা বজায় রাখা সম্ভব হয়েছে।

ই-কেওয়াইসিঃ

রেশন কার্ডের ই-কেওয়াইসি করার জন্য আলাদা কোন ডকুমেন্টসের প্রয়োজন নেই। যেহেতু বায়োমেট্রিক ডেটা থেকে শুরু করে সমস্ত প্রয়োজনীয় কেওয়াইসি তথ্য ইতিমধ্যেই আধার ডেটাবেসে সংরক্ষিত আছেই, তাই রেশন কার্ডের সাথে শুধুমাত্র আধার লিংক করলেই ই-কেওয়াইসি সম্পন্ন হবে, যা সহজেই এবং অল্প সময়ই অনলাইন পোর্টাল থেকে গ্রাহকরা করতে পারবেন।

রেশন কার্ড আধার লিংক চেক

আপনার যদি রেশন কার্ডের ই-কেওয়াইসি বা আধার লিংক করা আছে কিনা তা চেক করতে হয় তবে আপনি অনলাইন পোর্টাল থেকে সহজেই সেটি করে নিতে পারবেন।

রেশন কার্ড আধার লিংক চেক করার জন্য নিম্নলিখিত ধাপগুলি অনুসরন করুনঃ

  • এরপর আপনি স্ট্যাটাস চেক করার পেজে পৌঁছাবেন যেখানে আপনাকে রেশন কার্ডের নম্বরটি লিখে ‘Check Status’ এ ক্লিক করতে হবে। মনে রাখবেন এক্ষেত্রে শুধুমাত্র নম্বরটুকুই লিখতে হবে, কোন ক্যাটেগরি উল্লেখ করতে হবে না। 
check ekyc status
  • বাটনে ক্লিক করার পরেই নিচে আপনার রেশন কার্ডের স্ট্যাটাসটি দেখা যাবে এবং যদি ই-কেওয়াইসি না করা থাকে তবে ‘E-KYC: NOT DONE’ দেখাবে।
ration card e kyc status
  • সেক্ষেত্রে ই-কেওয়াইসি করার জন্য আপনাকে নিচের দেওয়া ‘Click here to EKYC’ বাটনে ক্লিক করতে হবে।
  • এরপর একটি নতুন পেজ খুলবে, যেখানে আপনাকে রেশন কার্ডের নম্বরটি লিখে সার্চে ক্লিক করতে হবে।
ration card e kyc
  • তাহলেই রেশন কার্ডধারকের ডিটেলসটি আপনি দেখতে পাবেন যেখানে নাম, আধার নম্বর, মোবাইল নম্বর ইত্যাদি উল্লেখ থাকবে এবং আধার লিঙ্কিং স্ট্যাটাস ‘Aadhaar is not linked yet’ লেখা থাকবে।
link aadhaar with ration card
  • আপনাকে নিচে ‘Link aadhaar and mobile number’ চেক বক্সে ক্লিক করতে হবে। তারপর নিচে আধার নম্বরটি লিখে ‘Send OTP’ তে ক্লিক করতে হবে। তাহলে আপনার আধার লিংক করা মোবাইল নম্বরে একটি OTP যাবে। এক্ষেত্রে মনে রাখবেন যে রেশন কার্ডে উল্লিখিত মোবাইল নম্বরে কোন OTP যাবে না, শুধুমাত্র আধারে উল্লিখিত মোবাইল নম্বরেই OTP যাবে। আপনাকে সেটি লিখে ‘Submit’ করতে হবে।
link aadhaar ration card
  • সাবমিট করার পর আধার ডিটেলস থেকে কিছু তথ্য নিয়ে একটি পপ্‌আপ ম্যাসেজ খুলবে, যেখানে আধার কার্ড হোল্ডারের ছবি, নাম, জন্ম তারিখ, জেলা ও পিন কোড দেখাবে এবং একটি ম্যাসেজ দেখা যাবে যেখানে লেখা থাকবে ‘Aadhaar has been successfully linked with your Ration Card.’ অর্থাৎ আপনার রেশন কার্ডের সাথে আধার লিংক করা বা ই-কেওয়াইসি কাজটি সম্পন্ন হয়েছে।
aadhaar successfully linked ration card

Leave a Comment