CGTMSE স্কিমের নির্দেশিকা ২০২৪, যোগ্যতা, ঋণের পরিমান, সময় সীমা ও অন্যান্য সুবিধে

Updated on January 16th, 2024 ||

সিজিটিএমএসই (CGTMSE) বা ক্রেডিট গ্যারান্টি ফান্ডস ট্রাস্ট ফর মাইক্রো অ্যান্ড স্মল এন্টারপ্রাইজ  হল একটি ট্রাস্ট যেটি ভারত সরকারের মাইক্রো স্মল অ্যান্ড মিডিয়াম এন্টারপ্রাইজ (MSME) এবং ভারতের ক্ষুদ্র শিল্প উন্নয়ন ব্যাঙ্ক (SIDBI)-এর অধীনে প্রতিষ্ঠিত। 

দেশের অর্থনৈতিক পরিকাঠামো মজবুত করতে ক্ষুদ্র ও ছোট শিল্পগুলির ভূমিকা অনস্বীকার্য। তাই এই ধরনের উদ্যোগগুলিকে একটি বিশেষ সুরক্ষা দেওয়ার জন্য ২০০৬ সালে MSME (Micro and Small Enterprises) গঠন করা হয়। এই ট্রাস্টের একটি জনপ্রিয় স্কিম হোল CGTMSE যেটি ক্ষুদ্র ও ছোট শিল্পগুলি বিকাশের জন্য ক্রেডিট গ্যারান্টি দিয়ে থাকে। অর্থাৎ এক্ষেত্রে লোণ ব্যাঙ্ক দিয়ে থাকে এবং তার গ্যারান্টি দেয় সরকার। পূর্বে এটি ২ কোটি টাকা পর্যন্ত ক্রেডিট গ্যারান্টি দিত কিন্তু ১লা এপ্রিল ২০২৩ থেকে ক্রেডিটের পরিমাণ বাড়িয়ে ৫ কোটি পর্যন্ত করা হয়েছে।

সরকারি যে কোন স্কিম-ই হোক, সেটি সঠিক ভাবে উপলব্ধ করতে বা যথাযত ব্যবসায়িক পরিকল্পনার ক্ষেত্রে আপনাকে অবশ্যই স্কিমটির সুবিধে, নিরাপত্তা, কভারেজের পরিমান, কভারেজের সময়কাল, অন্যান্য শর্ত ইত্যাদি বিস্তারিত জেনে রাখা অবশ্যই উচিৎ।

এই স্কিমের ক্ষেত্রে ‘প্রাথমিক এবং সমান্তরাল নিরাপত্তা’, ‘হাইব্রিড মডেল’, ‘লক ইন পিরিয়ড’ এবং ‘বার্ষিক গ্যারান্টি ফি’ খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এ সবই নিচে বিস্তারিত উল্লেখ করা হোল।

বিস্তারিত জানতে নিচে পড়ুন-

Table of Contents

CGTMSE স্কিম কি?

যে কোন প্রকার উদ্যোগের পেছনেই তার আর্থিক সহায়তা অন্যতম প্রধান ভূমিকা পালন করে থাকে। সেক্ষেত্রে কোন প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে আর্থিক সহায়তা পেতে হলে নির্দিষ্ট কিছু জামানতের উল্লেখ থাকে যেটি অনেক নতুন উদ্যোগপতির জন্যই বেশ অসুবিধেজনক হতে পারে এবং তারা নিরুৎসাহিত হয়ে পড়তে পারেন। 

প্রধানত এই সমস্যা সমাধানের জন্যই CGTMSE স্কিম যা আনুষ্ঠানিকভাবে ৩০শে আগস্ট, ২০০০-এ চালু করা হয়েছিল। ভারত সরকার এবং স্মল ইন্ডাস্ট্রিস ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া (SIDBI) মিলে ৪ঃ১ অনুপাতে মোট ১৯০৬.৫৫ কোটি টাকা নিয়ে এই ট্রাস্টের যাত্রাপথ শুরু করেছিল। 

সিজিটিএমএসই শিল্পগুলিকে কোনও তৃতীয় পক্ষের গ্যারান্টি বা জামানত ছাড়াই আর্থিক সহায়তা প্রদান করে এবং ঋণদাতাদের এটি নিশ্চয় করে যে তারা ডিফল্ট হলে প্রদত্ত পরিমাণের ৫০%, ৭৫%, ৮০%, ৮৫% অনুপাতে একটি গ্যারান্টি কভার প্রদান করা হবে।

CGTMSE স্কিমের অধীনে উৎপাদন বা পরিষেবা বিষয়ক নতুন বা বর্তমান উভয় ক্ষুদ্র ও অতি ক্ষুদ্র উদ্যোগই ৫ কোটি টাকা পর্যন্ত ক্রেডিট সুবিধা পাওয়ার জন্য যোগ্য।

cgtmse msme scheme

এবার দেখে নেওয়া যাক ক্ষুদ্র, অতি ক্ষুদ্র ও মাঝারি  উদ্যোগ বলতে আমরা কি বুঝি?

১লা জুলাই ২০২০ থেকে প্রযোজ্য সংশোধিত শ্রেণীবিভাগ অনুযায়ী –

প্ল্যান্ট এবং মেশিনারি/সরঞ্জাম এবং বার্ষিক টার্নওভারে বিনিয়োগ
শ্রেণীবিভাগমাইক্রোছোটমাঝারি
প্ল্যান্ট এবং যন্ত্রপাতি বা সরঞ্জাম বিনিয়োগ১ কোটি টাকার বেশি নয় ১০  কোটি টাকার বেশি নয় ৫০  কোটি টাকার বেশি নয় 
বার্ষিক টার্নওভার৫ কোটি টাকার বেশি নয়৫০ কোটি টাকার বেশি নয়২৫০ কোটি টাকার বেশি নয়

CGTMSE স্কিমের যোগ্যতা

কৃষি, স্বনির্ভর গোষ্ঠী (এসএইচজি) ইত্যাদি ছাড়া উৎপাদন বা পরিষেবা ক্রিয়াকলাপের সাথে যুক্ত নতুন এবং বিদ্যমান ক্ষুদ্র ও অতি ক্ষুদ্র উদ্যোগপতিরা এই স্কিমের জন্য আবেদন করতে পারেন।

CGTMSE স্কিমের বৈশিষ্ট্য ২০২৪ 

যোগ্যক্ষুদ্র উৎপাদন বা পরিষেবা সংক্রান্ত কার্যকলাপ
অযোগ্যশিক্ষা ও প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠান, স্বনির্ভর গোষ্ঠী (এসএইচজি), এবং কৃষি-সম্পর্কিত কার্যক্রম
ঋণের পরিমাণক্ষুদ্র ও অতি ক্ষুদ্র উদ্যোগের জন্য ৫ কোটি টাকা এবং আঞ্চলিক গ্রামীণ ব্যাঙ্কগুলিতে (RRBs) ৫০ লক্ষ পর্যন্ত ক্রেডিট সুবিধা দেওয়া হয়েছে
কভারেজের নিশ্চয়তা ৫ লাখ পর্যন্ত ঋণের জন্য অতি ক্ষুদ্র শিল্পের গ্যারান্টি কভারের পরিমাণ হোল ৮৫% এবং ১০ লক্ষ থেকে ১ কোটি পর্যন্ত ক্রেডিট সুবিধার পরিমাণ হোল ৫০%।
বার্ষিক গ্যারান্টি ফি০.৩৭% – ১.৩৫%
জামানত আবশ্যক নয়
ঋণ প্রদানকারী সদস্য পাবলিক সেক্টর আন্ডারটেকিং (PSU), নন-ব্যাংকিং ফাইন্যান্সিয়াল কোম্পানি (NBFC), স্মল ফাইন্যান্স ব্যাংক, আঞ্চলিক গ্রামীণ ব্যাংক (RRB), বেসরকারি ব্যাংক, এবং বিদেশী ব্যাংক

CGTMSE স্কিমের নিয়ম

  • কোম্পানির ব্যবসায়িক কার্যকলাপ নিয়মিত চালু থাকতে হবে। পাঠকগণের সুবিধের জন্য জানান হচ্ছে যে সেক্ষেত্রে কোম্পানি পরিদর্শন রিপোর্ট (Inspection report) ও পরিদর্শন রেজিস্টারের (Inspection register) গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে।
  • CGTMSE ক্রেডিট থেকে পাওয়া অর্থ অন্য কোন ঋণ পরিশোধের কাজে ব্যবহার করা যাবে না।
  • সিজিটিএমএসই তে আপনি টার্ম লোণ অর্থাৎ মেশিনারী লোণ ও কনস্ট্রাকশন লোণ নিতে পারবেন এবং কার্যকরী মূলধন অর্থ ঋণ হিসেবে নিতে পারেন।

ভবিষ্যৎ ক্রেডিট কার্ড

CGTMSE হাইব্রিড মডেল- 

২০১৮ সালে সরকার CGTMSE স্কিমে একটি নতুন হাইব্রিড ব্যবস্থার সংযোজন করেছে যে যেসব সম্পত্তি Collateral Security -র অন্তর্ভুক্ত নয় সেগুলিকেও সর্বাধিক ৫ কোটি টাকা পর্যন্ত CGTMSE গ্যারান্টি কভারেজ দেওয়া হয়েছে।

যদি উদ্যোক্তা ঋণ পরিশোধ করতে অক্ষম হন তবে এই স্কিমের মাধ্যমে ঋণদাতাকে তার বা তার ট্রাস্টের দ্বারা হওয়া ক্ষতির একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ পর্যন্ত পরিশোধ করা হবে।

ক্রেডিট গ্যারান্টি স্কিমের প্রকার 

  • ব্যাঙ্কগুলির জন্য ক্রেডিট গ্যারান্টি স্কিম- এই স্কিমের মাধ্যমে ক্ষুদ্র ও অতি ক্ষুদ্র উদ্যোগের ঋণগ্রহীতাদের ঋণ প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান দ্বারা ঋণ সুবিধার ক্ষেত্রে গ্যারান্টি প্রদান করা হয়।
  • NBFC-এর জন্য ক্রেডিট গ্যারান্টি স্কিম- এই স্কিমের মাধ্যমে যোগ্য নন-ব্যাংকিং ফাইন্যান্সিয়াল কোম্পানি বা NBFCS দ্বারা ক্ষুদ্র ও অতি ক্ষুদ্র উদ্যোগে ঋণগ্রহীতাদের ক্রেডিট সুবিধা দেওয়া হয়।
  • সাব ডেব্‌ট স্কিম- এই স্কিমের মাধ্যমে তফসিলি বাণিজ্যিক ব্যাঙ্কগুলিকে গ্যারান্টি কভারেজ প্রদান করা হয় যাতে ব্যাঙ্কের মাধ্যমে এমএসএমই-এর প্রবর্তকদের ইক্যুইটি বা সাব ডেব্‌ট বা আধা ইক্যুইটি ইত্যাদির জন্য ব্যাঙ্কের মাধ্যমে ব্যক্তিগত ঋণ প্রদান করা যায়।
  • পিএম স্বনিধি- শহুরে রাস্তার বিক্রেতাদের সমর্থন করার জন্য ভারত সরকার এই প্রকল্পটি চালু করেছে। সদস্য ঋণদানকারী প্রতিষ্ঠানকে ক্রেডিট গ্যারান্টি কভারেজ প্রদান করা হয় যাতে তারা রাস্তার বিক্রেতাদের তাদের কার্যকরী মূলধনের প্রয়োজন মেটাতে ক্রেডিট সুবিধা দিতে পারে।

CGTMSE কভারেজ সুবিধা

  • কোন আর্থিক প্রতিষ্ঠানের দ্বারা নতুন এবং বর্তমানে অবস্থিত ক্ষুদ্র ও অতি ক্ষুদ্র উদ্যোগের ক্ষেত্রে কোন রকম জামানত ছাড়া সর্বোচ্চ ৫ কোটি টাকার সুবিধা পাওয়া যাবে অর্থাৎ মেয়াদি ঋণ (term loan), কার্যকরী মূলধন (working capital), ব্যাংক গ্যারান্টি, ক্রেডিট লেটার সবকিছু মিলিয়ে কোন একজন সর্বাধিক ৫ কোটি টাকা পর্যন্ত ঋণ পেতে পারেন।
  • গ্যারান্টি কভারেজ নির্বাচিত নন্‌-ব্যাংকিং আর্থিক কোম্পানি (NBFCS) এবং ছোট আর্থিক ব্যাঙ্কের কাছে উপলব্ধ করা হবে। ৫০%, ৭৫%, ৮০% ও ৮৫% হারে এখানে গ্যারান্টি কভারেজ প্রদান করা হয়। 
  • মাইক্রো-এন্টারপ্রাইজের ক্ষেত্রে ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ৮৫% ক্রেডিট গ্যারান্টি সুবিধা দেওয়া হয়েছে। খুচরা বাণিজ্যিক (Retailer) কার্যকলাপে প্রতি MSE ঋণগ্রহীতাদের জন্য ১০ লক্ষ থেকে ১ কোটি টাকার ক্রেডিট দেওয়া হয়েছে এবং তার গ্যারান্টি কভারের সীমা হোল ৫০%।
  • ট্রাস্ট মূল পরিমাণের ৭৫% পর্যন্ত ডিফল্ট গ্যারান্টি দেয় তবে কোন বিশেষ শ্রেণীর ঋণগ্রহীতার জন্য ডিফল্ট মূল পরিমাণের ৮৫% পর্যন্ত হতে পারে। ৫০ লাখ পর্যন্ত ক্রেডিটের সর্বোচ্চ ৩৭.৫০ লক্ষ টাকা গ্যারান্টি ক্যাপ পেতে পারেন।
  • নারী উদ্যোক্তাদের দ্বারা পরিচালিত অথবা নারী মালিকানাধীন ক্ষুদ্র উদ্যোগের ক্ষেত্রে ৮৫% গ্যারান্টি কভার প্রদান করা হয়। MSME দ্বারা চিহ্নিত এস্পিরেশনাল বা বিকাশের প্রয়োজন আছে এমন জেলাগুলির ক্ষেত্রেও ৮৫% গ্যারান্টি কভারেজ দেওয়া হয়।
  • MSME দ্বারা ‘জিরো ডিফেক্ট জিরো ইফেক্ট’ বা ZED সার্টিফিকেশন উদ্যোগতাদের ক্ষেত্রে ৮৫% গ্যারান্টি কভার দেওয়া হয়েছে। এছাড়া প্রতিবন্ধী উদ্যোগতার ক্ষেত্রেও একই পরিমাণ গ্যারান্টি কভারেজের সুবিধে দেওয়া হয়েছে।
  • অগ্নিবীর জওয়ান যদি পরবর্তীকালে ব্যবসায়ে উদ্যোগী হন সেক্ষেত্রেও ৮৫% গ্যারান্টি কভারেজ পাওয়া যাবে।
  • ভারতের উত্তর-পূর্ব রাজ্যগুলি এবং  জম্মু, কাশ্মীর, লাদাক ও সিকিম রাজ্যের ক্ষেত্রেও ৮০% গ্যারান্টি ক্রেডিটের সুবিধে দেওয়া হয়েছে।
  • এছাড়া CGTMSE কভারেজের মধ্যে ‘ক্রমবর্ধমান সুবিধা’ দেওয়া হয়েছে অর্থাৎ আপনি যদি ২ কোটি টাকার লোণ নেন এবং ২ বছর পর আপনার লোণের পরিমান ১ কোটি ৭৫ লক্ষ টাকা হয়ে গিয়ে থাকে তবে আপনি ২৫ লাখ টাকা কার্যকরী মূলধন (working capital) হিসেবে অনুমোদন করাতে পারেন। 
  • কোন একজনের যদি একাধিক কোম্পানি থাকে তবে সব কোম্পানি মিলিয়ে তিনি মোট ৫ কোটি টাকার সর্বোচ্চ ক্রেডিট নিতে পারবেন।
শ্রেণীগ্যারান্টির সর্বাধিক পরিমাণ
 ৫ লাখ পর্যন্ত৫ লাখ থেকে ৫০ লাখ পর্যন্ত৫০ লক্ষ থেকে ৫ কোটি পর্যন্ত
মাইক্রো এন্টারপ্রাইজডিফল্টের পরিমাণ ৮৫% অর্থাৎ সর্বোচ্চ ৪.২৫ লাখ পর্যন্তডিফল্টের পরিমাণ ৭৫% অর্থাৎ সর্বোচ্চ ৩৭.৫০ লাখ পর্যন্ত ডিফল্টের পরিমাণ ৭৫% অর্থাৎ সর্বোচ্চ ৩ কোটি ৭৫ লাখ পর্যন্ত
উত্তর পূর্ব অঞ্চলে অবস্থিত মাইক্রো এন্টারপ্রাইজগুলি (সিকিম, জম্মু কাশ্মীর এবং লাদাক সহ) ডিফল্টের পরিমাণ ৮০%
মহিলা উদ্যোক্তা / SC/ST উদ্যোক্তা / ZED প্রত্যয়িত MSEs / প্রতিবন্ধী ব্যক্তি (PwD) / অগ্নিবীর দ্বারা ঘোষিত MSEডিফল্টের পরিমাণ ৮৫%
অন্যান্য সকল শ্রেণীর ঋণগ্রহীতাদের ক্ষেত্রেডিফল্টের পরিমাণ ৭৫%

প্রাথমিক ও সমান্তরাল নিরাপত্তা কাকে বলে?

প্রাথমিক নিরাপত্তা – ঋণের টাকায় ঋণের গ্রাহক যে সব ব্যবসা সংক্রান্ত জিনিস কিনে থাকে সেগুলিই হোল ঋণের প্রাথমিক নিরাপত্তা। যেমন কোন মেশিন কেনার জন্য যদি ঋণ নেওয়া হয়ে থাকে এবং ঋণের টাকায় সেই মেশিন কেনা হলে সেটি হবে ঋণের প্রাথমিক নিরাপত্তা।

এছাড়াও যদি কার্যকরী মূলধন (working capital) দিয়ে ব্যবসার কাজের কোন জিনিস কেনা হয় তবে সেই জিনিসগুলি (current assets) হোল ট্রাস্টের প্রাথমিক নিরাপত্তা বা Primary Security।

সমান্তরাল নিরাপত্তা – যে কোন ধরনের সম্পদ যেগুলো ব্যবসার সাথে যুক্ত নয় যেমন জমি, বাড়ি বা গাড়ি ইত্যাদি কিন্তু ব্যবসার নিরাপত্তা হিসেবে ঋণের শংসাপত্রে উল্লেখ করা হয়েছে সেগুলি হোল সমান্তরাল নিরাপত্তা বা Collateral Security।

CGTMSE কভারেজ সময় সীমা

CGTMSE স্কিমটির কভারেজের সময় সীমা হোল গ্যারান্টি পাওয়ার তারিখ থেকে সর্বোচ্চ ১০ বছর। টার্ম লোণ ১০ বছরের পর নিজ হতেই বন্ধ হয়ে যায়। 

লক ইন পিরিয়ড

লক ইন পিরিয়ড ২ টি বিষয়ের ওপর নির্ভর করে। ঋণের অর্থের চূড়ান্ত অংশ বিতরণের দিন থেকে ১৮ মাস বা ক্রেডিট গ্যারান্টি শুরুর দিন থেকে ১৮ মাস, যেটি পরে হবে তাকে লক ইন পিরিয়ড বলা হয়েছে। এই সময় কোন রকম দাবি ব্যাঙ্ক বা প্রতিষ্ঠান অনুমোদন করে না। 

বার্ষিক গ্যারান্টি ফি

এমএসই-তে ঋণের ক্ষেত্রে উৎসাহ বাড়ানোর জন্য গ্যারান্টি খরচ কমিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ১লা এপ্রিল ২০২৩ তে সংশোধিত বার্ষিক গ্যারান্টি ফি (AGF) কাঠামো নীচের সারণীতে দেওয়া হলঃ

লোণের সীমাবার্ষিক হার
₹০ থেকে ₹১০ লক্ষ পর্যন্ত০.৩৭%
₹১০ লক্ষের বেশী থেকে ₹৫০ লক্ষ পর্যন্ত০.৫৫%
₹৫০ লক্ষের বেশী থেকে ₹১ কোটি পর্যন্ত০.৬০%
₹১ কোটির বেশী থেকে ₹২ কোটি পর্যন্ত১.২০%
₹২ কোটির বেশী থেকে ₹৫ কোটি পর্যন্ত১.৩৫%

ঋণের আবেদনের জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র

CGTMSE স্কিমের ঋণের জন্য প্রয়োজনীয় নথিগুলি হোলঃ

  • যথাযথভাবে পূরণ করা CGTMSE ঋণের আবেদনপত্র
  • কোম্পানি রেজিস্ট্রেশন সার্টিফিকেট
  • CGTMSE লোন কভারেজ লেটার
  • ব্যাংক থেকে ঋণ অনুমোদনের কপি
  • পাসপোর্ট আকারের ছবি
  • আধার কার্ড
  • রেশন কার্ড
  • ব্যাংক অ্যাকাউন্ট বিবরণী
  • ব্যাঙ্কের অন্যান্য কোনও প্রয়োজনীয় নথি

সিজিটিএমএসই স্কিম কিভাবে পাবেন

CGTMSE-এর অধীনে ঋণ পাওয়ার পদ্ধতি নিচে বর্ণনা করা হোল:

প্রথম ধাপ- ব্যবসায়িক সত্তা গঠন

CGTMSE-এর ঋণ অনুমোদনের আগে, ঋণগ্রহীতাকে একটি প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানি বা সীমিত দায়বদ্ধ অংশীদারি অথবা এক-ব্যক্তি কোম্পানি বা কোন কোম্পানির মালিকানায় অন্তর্ভুক্ত থাকতে হবে এবং স্কিম কার্যকর করার জন্য প্রয়োজনীয় অনুমোদন এবং ট্যাক্স নিবন্ধন পেতে হবে।

দ্বিতীয় ধাপ- ব্যবসার রিপোর্ট বানানো

ঋণগ্রহীতাদের বর্তমান বাজার বিশ্লেষণ করে একটি যথাযথ ব্যবসায়িক পরিকল্পনা প্রস্তুত করতে হবে যেমন বিজনেস মডেল, প্রজেক্টেড ফিনান্স, প্রোমোটার প্রোফাইল ইত্যাদি। তারপর রিপোর্টটি ক্রেডিট সুবিধাদাতার কাছে উপস্থাপন করতে হবে এবং সাথে CGTMSE-এর অধীনে ঋণ পাওয়ার জন্য একটি আবেদন পত্র জমা করতে হবে। এই ধরনের প্রকল্প রিপোর্ট অভিজ্ঞ পেশাদারদের দ্বারা প্রস্তুত করা উচিত যা অনুমোদনের সম্ভাবনা বৃদ্ধি করবে।

তৃতীয় ধাপ- ব্যাংক থেকে ঋণ অনুমোদন

ব্যবসায়িক পরিকল্পনা এবং আবেদন প্রক্রিয়াধীন হওয়ার পর ব্যাঙ্কগুলি ব্যবসায়িক মডেলের কার্যকারিতা বিশ্লেষণ করে। প্রতিটি ব্যাঙ্কেরই নিজস্ব শর্তাবলী ও কার্যকরী মূলধনের নির্দিষ্ট মাত্রা থাকে এবং সেই অনুযায়ী আবেদন পত্রটি প্রক্রিয়াকরণ করে এবং ব্যাঙ্কের নীতি অনুসারে অনুমোদন দেয়।

চতুর্থ ধাপ- গ্যারান্টি কভার প্রাপ্তি

ঋণ অনুমোদিত হওয়ার পর ব্যাঙ্ক CGTMSE কর্তৃপক্ষের কাছে গ্যারান্টি কভারের জন্য আবেদন করে। ঋণটি CGTMSE দ্বারা অনুমোদিত হলে, ঋণগ্রহীতাকে গ্যারান্টি ফি এবং পরিষেবা চার্জ দিতে হয়।

সদস্য ঋণ প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান

MLI বা মেম্বার লেন্ডিং ইনস্টিটিউশন্স হোল সেই সব আর্থিক প্রতিষ্ঠান যারা ক্রেডিট গ্যারান্টি ট্রাস্টের সাথে চুক্তি সই করেছে এবং যেখানে CGTMSE এর সুবিধে পাওয়া যায়। বর্তমানে (Jan, 2023) মোট ১০৯ টি এই প্রকার ট্রাস্ট রয়েছে।

  • ১২ টি পাবলিক সেক্টর ব্যাংক
  • ২২ টি প্রাইভেট সেক্টর ব্যাঙ্ক
  • ২৩ টি আঞ্চলিক গ্রামীণ ব্যাংক
  • ৬ টি বৈদেশিক ব্যাংক
  • ৯ টি ক্ষুদ্র আর্থিক ব্যাংক
  • ৯ টি আর্থিক প্রতিষ্ঠান
  • ১৩ টি তফসিলি আরবান কো-অপারেটিভ ব্যাঙ্ক
  • ১৫ টি অন্যান্য কো-অপারেটিভ ব্যাঙ্ক

CGTMSE কৃতিত্ব (আর্থিক বছর ২০২২-২৩)

বিষয়৩১শে মার্চ, ২০২২ পর্যন্ত৩১শে মার্চ, ২০২১ পর্যন্ত
গ্যারান্টি অনুমোদন (সংখ্যায়)৮৮,৯৩,২৮১৬৫,৯০,৪১৩
মোট ঋণের পরিমাণ (কোটিতে)৩,১৮,১২২২,৬০,২০২
গ্যারান্টিযুক্ত ইউনিটের আনুমানিক টার্নওভার (কোটিতে)৭১,৯৯,১২৬৪৫,৫৮,৫০১
আনুমানিক কর্মসংস্থান সৃষ্টি (সংখ্যা লক্ষতে)১৫৫১৩২
মহিলা সুবিধাভোগী (% থেকে মোট গ্যারান্টি পরিমাণ)১৪১৪

তথ্য-  https://www.cgtmse.in/

CGTMSE সম্পর্কিত প্রশ্ন (FAQ)

CGTMSE ফি কী ফেরতযোগ্য?

যদি ফি ফেরতের অনুরোধ ফি দেওয়ার তারিখ থেকে ৩ মাসের মধ্যে করা হয় তবে ফি ফেরত ফেরতযোগ্য। তবে মনে রাখতে হবে প্রাক-বন্ধের ক্ষেত্রে যদি ফি ফেরতের দাবি করা হয় তবে সেক্ষেত্রে আগে অ্যাকাউন্ট বন্ধের অনুরোধ করা বাধ্যতামূলক। 

কখন ঋণের জন্য গ্যারান্টি কভার শুরু হবে?

যে তারিখে গ্যারান্টি ফি ট্রাস্টের অ্যাকাউন্টে জমা হবে সেই তারিখ থেকেই গ্যারান্টি কভার কার্যকর হবে।

CGTMSE-তে লক-ইন পিরিয়ড কত?

CGTMSE-তে লক-ইন সময়কাল হোল ১৮ মাস।

ঋণগ্রহীতার কি আয়কর স্থায়ী অ্যাকাউন্ট নম্বর (IT-PAN) থাকা বাধ্যতামূলক?

হ্যাঁ, MLI থেকে ক্রেডিট সুবিধা নিতে হলে ঋণগ্রহীতার IT-PAN থাকতে হবে। আয়কর আইন ১৯৬১-এর ধারা ২৭২(সি) এবং ধারা ১৩৯এ(৫) তে উল্লেখ করা আছে যে রিটার্ন, আপিল এবং চালানের ক্ষেত্রে IT-PAN প্রয়োজন।

পূর্বেই এনপিএ (নন-পারফর্মিং অ্যাসেটস) হয়ে যাওয়া কোন অ্যাকাউন্ট কি CGTMSE স্কিমের আওতায় আনা যেতে পারে?

না, তা সম্ভব নয়।

CGTMSE দ্বারা কি কোনো গ্যারান্টি ফি নেওয়া হবে?

হ্যাঁ. বকেয়া ভিত্তিতে গ্যারান্টিযুক্ত পরিমাণের ওপর প্রতি বছর ১.৫০% হারে।

সিজিটিএমএসই তে বার্ষিক সুদের হার কত?

CGTMSE ঋণের সুদের হার হোল ১৪% থেকে ১৮% এর মধ্যে।

মুদ্রা ঋণ কি CGTMSE-এর অধীনে কভার করা যেতে পারে?

মুদ্রা ঋণ যোজনা CGTMSE (মাইক্রো এবং ছোট উদ্যোগের জন্য ক্রেডিট গ্যারান্টি ফান্ড ট্রাস্ট) এর আওতায় রয়েছে। ঋণটি মেয়াদী ঋণ এবং ওভারড্রাফ্ট সুবিধা উভয় আকারে নেওয়া যেতে পারে। ডিফল্ট হলে সরকার ঋণ পরিশোধের দায়িত্ব গ্রহণ করে।

আরও পড়ুনঃ

Leave a Comment