এলআইসি জীবন উমং পলিসি | LIC Jeevan Umang Plan in Bengali 2024

Updated on May 28th, 2024 ||

লাইফ ইন্স্যুরেন্স কর্পোরেশন অফ ইন্ডিয়া বা এলআইসি (LIC) হল একটি ভারতীয় বহুজাতিক পাবলিক সেক্টরের জীবন বীমা কোম্পানি যেটি প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল ১৯৫৬ সালে এবং এর সদর দপ্তরটি হোল মুম্বাইতে অবস্থিত। এটি হোল ভারতের বৃহত্তম বীমা কোম্পানি এবং ২০২৩ সালের মার্চ মাস পর্যন্ত যার মোট সম্পদের পরিমাণ হোল ₹৪৫.৭ ট্রিলিয়ন (US $৫৭০ বিলিয়ন)। এলআইসি হোল ভারত সরকারের মালিকানাধীন একটি প্রতিষ্ঠান এবং অর্থ মন্ত্রক দ্বারা এর প্রশাসনিক নিয়ন্ত্রণ করা হয়ে থাকে।

এলআইসি বিভিন্ন ধরনের জীবন বীমার সুবিধে দিয়ে থাকে এবং সরকার দ্বারা পরিচালিত হওয়ার কারনে মানুষ জীবন বীমা পরিকল্পনার ক্ষেত্রে এলআইসিকে অনেক বেশী ভরসা করে থাকেন। 

এলআইসি জীবন উমং পলিসি হল কোম্পানির দেওয়া সেরা-পারফর্মিং প্ল্যানগুলির মধ্যে অন্যতম যা দ্বৈত সুবিধা প্রদান করে থাকে। এই পলিসি আপনার সারা জীবনের আয় সুরক্ষার নিশ্চয়তার পাশাপাশি আপনার অনুপস্থিতিতে আপনার পরিবারকে বীমা সুরক্ষার সুবিধা প্রদান করে।

Table of Contents

জীবন উমং পলিসি কি?

এলআইসি জীবন উমং হোল একটি জীবনবীমা প্ল্যান যেটি ২০২০ সালের ১লা ফেব্রুয়ারী প্রথম চালু করা হয়েছিল। এই প্ল্যানের মূল বৈশিষ্ট হল যে বীমা ধারক মাত্র ১৫ বছর প্রিমিয়াম এবং সর্বনিম্ন রাশি ₹২ লক্ষ টাকা জমা দেওয়ার পর থেকেই বার্ষিক ৮% হারে রিটার্ন পেতে শুরু করবেন সর্বাধিক ১০০ বছর বয়স পর্যন্ত। বীমা ধারকের অবর্তমানে বা তাঁর ১০০ বছর পূর্ণ হলে পর পরিবারকে এককালীন অর্থ দেওয়া হবে অর্থাৎ এই পলিসি একাধারে আয় সুরক্ষা এবং বীমা কভারেজ দুই-ই প্রদান করা থাকে। 

এই পলিসি ৩ মাস বয়সের নবজাতকের নামেও করা যেতে পারে তাই অনেকেই তাদের বাচ্চাদের নামে এই পলিসি করে থাকেন। সেক্ষেত্রে সর্বাধিক প্রিমিয়ামের মেয়াদ ৩০ বছর পর্যন্ত তাঁরা তাদের সামর্থ্য মতো টাকা জমা করে বাচ্চার বাকি জীবনের আয়ের ব্যবস্থা করে যান।পরবর্তীকালে তাঁর অবর্তমানে তাঁর ওপর নির্ভরশীল পরিবারও বীমার এককালীন অর্থ পাবেন।

ফলস্বরূপ বলা যায় যে সাধারন মানুষের কাছে আশীর্বাদ স্বরূপ হোল এই জীবন উমং পলিসি।

পলিসির বিবরণ

জীবন উমং পলিসির বিবরণ নিম্নবর্তী সারণীতে উল্লেখ করা হলঃ

পলিসির নামএলআইসি জীবন উমং
প্ল্যান নং৯৪৫
শুরু হয়েছিল১লা ফেব্রুয়ারী ২০২০ সালে
সুদের হার৮%
জীবন বীমার মেয়াদ১০০ বছর বয়স পর্যন্ত
পলিসির মেয়াদ১০০ বছর – পলিসির করার সময় বয়স
ন্যূনতম বয়স৯০ দিন
সর্বোচ্চ বয়স৫৫ বছর
প্রিমিয়াম প্রদানের মেয়াদ১৫, ২০, ২৫ ও ৩০ বছর
প্রিমিয়াম প্রদানের মেয়াদ শেষে বয়সসর্বনিম্ন ৩০ বছর ও সর্বোচ্চ ৭০ বছর
প্রিমিয়াম প্রদানের ধরণমাসিক, ত্রৈমাসিক, অর্ধ-বার্ষিক ও বার্ষিক
ন্যূনতম রাশি₹২ লক্ষ
সর্বোচ্চ রাশিকোন সীমা নেই

প্রধানমন্ত্রী জীবন জ্যোতি বীমা যোজনা

এলআইসি জীবন উমং পলিসির বৈশিষ্ট্য

এই পলিসির উল্লেখযোগ্য বৈশিষ্টগুলি নিচে বর্ণনা করা হলঃ

  • জীবন উমং পলিসির ন্যূনতম রাশির পরিমাণ হল ₹২ লক্ষ টাকা এবং এর অধিক রাশির বীমার ক্ষেত্রে অর্থের পরিমাণ ২৫,০০০ এর গুণিতক হতে হবে।
  • এই পলিসিতে ৪ ধরনের প্রিমিয়ামের মেয়াদ বেছে নেওয়ার সুবিধা রয়েছে যথাক্রমে ১৫ বছর, ২০ বছর, ২৫ বছর এবং ৩০ বছর।
  • আপনি প্রিমিয়াম প্রদানের ক্ষেত্রে মাসিক, ত্রৈমাসিক, অর্ধ-বার্ষিক বা বার্ষিক ধরণ গ্রহণ করতে পারেন। এমনকি আপনি সরাসরি আপনার বেতন থেকে কেটে নেওয়ার পদ্ধতিও বেছে নিতে পারেন। সেক্ষেত্রে মাসিক প্রিমিয়াম শুধুমাত্র ন্যাশনাল অটোমেটেড ক্লিয়ারিং হাউস (NACH) এর মাধ্যমে পরিশোধ করা হবে।
  • আপনি যদি বার্ষিক বা অর্ধ-বার্ষিক প্রিমিয়ামের ধরণ বেছে নেন তবে সেক্ষেত্রে বার্ষিক ২% এবং অর্ধবার্ষিক ১% রিবেট বা ছাড় দেওয়া হয়।
  • এই পলিসি আপনাকে ত্রৈমাসিক বা বার্ষিক বা অর্ধ-বার্ষিক প্রিমিয়ামের ক্ষেত্রে ৩০ দিনের এবং মাসিক প্রিমিয়ামের ক্ষেত্রে ১৫ দিনের গ্রেস পিরিয়ড দিয়ে থাকে। যদি গ্রেস পিরিয়ডের মধ্যে প্রিমিয়াম জমা না করা হয়, তাহলে আপনার পলিসিটি বাতিল হয়ে যাবে। সেক্ষেত্রে পলিসি পুনরুজ্জীবিত করতে সর্বাধিক ৫ বছর পর্যন্ত সময় দেওয়া হয়।
  • আপনার বীমা রাশির পরিমানের ওপরেও রিবেট বা ছাড় দেওয়া হয়ে থাকে যেমন-
বীমাকৃত রাশিপ্রিমিয়ামে ছাড়
₹২,০০,০০০ – ₹৪,৭৫,০০০কোন ছাড় নেই
₹৫,০০,০০০ – ₹৯,৭৫,০০০বীমাকৃত রাশির ১.২৫%
₹১০,০০,০০০ – ₹২৪,৭৫,০০০বীমাকৃত রাশির ১.৭৫%
₹২৫,০০,০০০ ও তার ঊর্ধ্বেবীমাকৃত রাশির ২.০০%
  • আপনার প্রিমিয়ামের মেয়াদ শেষ হওয়ার পর থেকেই আপনি আজীবন বার্ষিক ৮% হারে রিটার্নের সুবিধা গ্রহণ করবেন।
  • যদি বীমাকৃত ব্যক্তি ১০০ বছর পূর্ণ করেন তবে পলিসির মেয়াদ শেষে ম্যাচুরিটি বেনিফিট হিসাবে এককালীন অর্থ পাবেন।
  • পলিসিটি যদি কোন বাচ্চার নামে করা হয়ে থাকে এবং তার বয়স যদি ৮ বছরের কম হয় সেক্ষেত্রে ঝুঁকি কভারেজ শুরু হবে পলিসিটির ২ বছর পূর্ণ হওয়ার পর থেকে অথবা যদি তার মধ্যে বাচ্চার ৮ বছর পূর্ণ হয় তবে যেটি আগে হবে সেখান থেকে কভারেজ শুরু হবে।
  • পলিসির মেয়াদকালের মধ্যে পলিসিধারীর মৃত্যু হলে ‘ডেথ বেনিফিট’ হিসেবে পরিবার বা নমিনি তাদের পছন্দ মতো এককালীন বা নিয়মিত কিস্তিতে অর্থ পাবেন।
  • এছাড়া আপনার দুই বছরের প্রিমিয়াম জমা হওয়ার পর আপনি সারেন্ডার ভ্যালুর ৮০%-৯০% পর্যন্ত ঋণ নিতে পারেন।
lic jeevan umang policy bengali

জীবন উমং পলিসির সুবিধাগুলি

এই পলিসির অধীনে আপনি নিম্নলিখিত সুবিধাগুলি পাবেনঃ

ডেথ বেনিফিটঃ

বীমাকৃত ব্যক্তির মৃত্যু যদি ম্যাচুরিটির নির্ধারিত তারিখের আগে হয়ে থাকে এবং অবশ্যই যেন পলিসিটি তখন বলবৎ থাকে তবে –

(i) ঝুঁকির কভারেজ শুরু হওয়ার আগেই যদি মৃত্যু হয়ে থাকে সেক্ষেত্রে  –

কোন রকম কর এবং সুদ ছাড়া প্রদত্ত প্রিমিয়ামের মোট পরিমাণের সমান পরিমাণ ও অতিরিক্ত প্রিমিয়াম এবং যদি রাইডার প্রিমিয়াম থাকে তা দেওয়া হবে। 

(অতিরিক্ত প্রিমিয়াম হোল ঝুঁকি বৃদ্ধির কারনে যে অতিরিক্ত অর্থ প্রদান করতে হয় এবং রাইডার প্রিমিয়াম হল পলিসি ধারকের সুবিধামত অতিরিক্ত কভারেজ যা প্রিমিয়ামের সাথে বাড়তি খরচ দিয়ে উপলব্ধ করতে হয়।)

(ii) ঝুঁকি কভারেজ থাকাকালীন মৃত্যুর ক্ষেত্রে –

নমিনি ডেথ বেনিফিট হিসেবে “মৃত্যুর বীমাকৃত রাশি” পাবেন। সেক্ষেত্রে তিনি “সিম্পল রিভার্শনারি বোনাস” বা সাধারণ প্রত্যাবর্তনমূলক বোনাস এবং যদি “ফাইনাল অ্যাডিশনাল বোনাস” বা চূড়ান্ত অতিরিক্ত বোনাস কিছু থাকে তা পাবেন।

এক্ষেত্রে “মৃত্যুর বীমাকৃত রাশি” এর পরিমাণ বার্ষিক প্রিমিয়াম অথবা বেসিক সাম অ্যাসুয়রডে্‌র ৭ গুণের বেশি হয়ে থাকে। এই পরিমাণ কোন ভাবেই মৃত্যুর তারিখ পর্যন্ত দেওয়া মোট প্রিমিয়ামের ১০৫% এর কম হবে না।

(বেসিক সাম অ্যাসুয়রড্‌ হোল কোন পলিসির ন্যুনতম নিশ্চিত রাশি যা পলিসি ম্যাচুরিটির পর পাওয়া যায়।)

এই ডেথ বেনিফিট এককভাবে অথবা ৫ বছর, ১০ বছর বা ১৫ বছরের কিস্তিতে নিতে পারেন এবং তা পলিসি হোল্ডার পলিসি নেওয়ার সময়ই উল্লেখ করে দিয়ে থাকেন। 

কিস্তির ভিত্তিতে অর্থ নেওয়ার ক্ষেত্রে আপনি বার্ষিক, অর্ধ-বার্ষিক, ত্রৈমাসিক বা মাসিক ব্যবধান পছন্দ করতে পারেন। নিচে অর্থপ্রদানের বিভিন্ন ধরনের সাথে ন্যূনতম কিস্তির পরিমাণের একটি তালিকা দেওয়া হলঃ

কিস্তি পরিশোধের ধরণন্যূনতম কিস্তির পরিমাণ
মাসিক ₹৫,০০০/-
ত্রৈমাসিক ₹১৫,০০০/-
অর্ধ-বার্ষিক₹২৫,০০০/-
বার্ষিক₹৫০,০০০/-

সারভাইভাল বেনিফিটঃ 

পলিসি হোল্ডার যদি প্রিমিয়াম পেমেন্টের মেয়াদ সম্পূর্ণ করেন তবে – 

  • যদি পলিসিটি কার্যকর থাকে, তাহলে প্রতি বছর বেসিক সাম অ্যাসুয়রডে্‌র ৮% করে দেওয়া হবে।
  • পলিসিহোল্ডার বেঁচে থাকা পর্যন্ত বা ম্যাচুরিটির তারিখের আগে শেষ বার্ষিকী পর্যন্ত (যেটি ঘটনা আগে ঘটবে) প্রতি বছর একই পরিমাণ অর্থ দেওয়া হবে।

ম্যাচুরিটি বেনিফিটঃ 

পলিসি হোল্ডার যদি ১০০ বছর বয়সে ম্যাচুরিটির দিন সম্পূর্ণ করেন তবে “সাম অ্যাসুয়রড্‌ অন ম্যাচুরিটি” সহ “সিম্পল রিভার্শনারি বোনাস” এবং “ফাইনাল অ্যাডিশনাল বোনাস” পাবেন।

রাইডার বেনিফিটসঃ

LIC  জীবন উমং পলিসিতে কভারেজ বাড়ানোর জন্য নিম্নলিখিত রাইডারগুলি যোগ করা যেতে পারে যেমন –

এলআইসি দুর্ঘটনাজনিত মৃত্যু এবং প্রতিবন্ধী রাইডার বেনিফিটঃ

বীমাকৃত ব্যক্তি যদি দুর্ঘটনার কারণে মারা যান বা অক্ষমতার শিকার হন, তাহলে LIC বেস প্ল্যানের অধীনে ডেথ বেনিফিটের সাথে দুর্ঘটনাজনিত রাইডার বেনিফিট অ্যাসিউরড্‌ অর্থ প্রদান করে থাকে।

এলআইসি এক্সিডেন্টাল বেনিফিট রাইডারঃ

LIC এক্সিডেন্টাল ডেথ বেনিফিট রাইডার হল একটি অ্যাড-অন সুবিধা। এই রাইডারটি নেওয়া থাকলে, যদি কোনও দুর্ঘটনায় বীমাকৃতের মৃত্যু হয় তবে সেই দুর্ভাগ্যজনক ঘটনার আর্থিক ক্ষতিপূরণ হিসেবে এলআইসি অর্থ প্রদান করবে।

এই রাইডারের অধীনে যে সুবিধাগুলি কভার করা হয় তা শুধুমাত্র প্রিমিয়াম পরিশোধের মেয়াদ (PPT) চলাকালীন সক্রিয় থাকে। যে বীমাকারীর প্রিমিয়াম পরিশোধের কমপক্ষে ৫ বছর বাকি আছে তিনি এই রাইডারটি নিতে পারবেন।

LIC নতুন টার্ম অ্যাসুরেন্স রাইডারঃ

এলআইসি নিউ টার্ম অ্যাসিউরেন্স রাইডার হল একটি অতিরিক্ত সুবিধা যা বেস পলিসিতে যোগ করা হলে ডাবল ডেথ বেনিফিট পাওয়া যায়। তবে মনে রাখতে হবে এই রাইডারটি শুধুমাত্র পলিসি শুরুর সময়ই নেওয়া যেতে পারে।

এলআইসি নতুন ক্রিটিকাল ইলনেস বেনিফিট রাইডারঃ

এই রাইডারটিও শুধুমাত্র পলিসি শুরুর সময় পাওয়া যাবে। এই রাইডারের অধীনস্থ ১৫টি গুরুতর অসুস্থতার মধ্যে যদি যেকোন একটিতে ধরা পড়ে তবে এই রাইডার থেকে আপনি অর্থ সহায়তা পাবেন। সেগুলি হোল যথাক্রমে-

  • নির্দিষ্ট তীব্রতার ক্যান্সার
  • ওপেন চেস্ট সিএবিজি
  • নির্দিষ্ট তীব্রতার প্রথম হার্ট অ্যাটাক
  • কিডনির নিয়মিত ডায়ালাইসিস
  • প্রধান অঙ্গ/অস্থি মজ্জা প্রতিস্থাপন
  • স্থায়ী উপসর্গের ফলে স্ট্রোক
  • অঙ্গ-প্রত্যঙ্গের স্থায়ী পক্ষাঘাত
  • স্থায়ী উপসর্গ সহ একাধিক স্ক্লেরোসিস বা ধমনী প্রভৃতির কাঠিন্য
  • অর্টিক সার্জারি বা মহাধমনীর চিকিৎসা
  • প্রাথমিক (ইডিওপ্যাথিক) পালমোনারি হাইপারটেনশন বা উচ্চ রক্তচাপ
  • আলজেইমার রোগ/ ডিমেনশিয়া বা স্মৃতিভ্রংশ
  • অন্ধত্ব
  • থার্ড ডিগ্রী বার্ন বা আগুনে পোড়া
  • হার্ট রিপ্লেসমেন্ট বা হার্টের ভালভ পরিবর্তন
  • বেনাইন ব্রেন টিউমার

তবে সেক্ষেত্রে রাইডারের সুবিধা বেসিক সাম অ্যাস্যুরডের থেকে বেশি হবে না এবং গুরুত্বপূর্ণ হোল যে এই সুবিধাগুলি প্রিমিয়াম চলাকালীন সময়ের মধ্যে হলে তবেই পাওয়া যেতে পারে এবং বকেয়া প্রিমিয়াম পরিশোধের মেয়াদকাল তখনও কমপক্ষে ৫ বছর থাকতে হবে।

LIC এর প্রিমিয়াম ওয়েভার বেনিফিট রাইডারঃ 

এই রাইডারটি তখনই নেওয়া সম্ভব যখন লাইফ অ্যাসিওরড একজন নাবালক। সেক্ষেত্রে পলিসিধারকের মৃত্যু হলে পলিসির ভবিষ্যতের সমস্ত প্রিমিয়াম মকুব করা হয়। তবে মনে রাখতে হবে যে এটি প্রিমিয়াম চলাকালীন সময়ের মধ্যে হতে হবে এবং প্রিমিয়াম পরিশোধের মেয়াদকাল কমপক্ষে ৫ বছর বাকি থাকতে হবে।

লোণের সুবিধাঃ

নিম্নোক্ত শর্তাবলী অনুযায়ী জীবন উমং পলিসিতে ঋণ সুবিধা নেওয়া যেতে পারে – 

  • কমপক্ষে দুই বছরের প্রিমিয়াম পরিশোধ করার পর পলিসিধারক ঋণ নেওয়ার যোগ্যতা অর্জন করবেন।
  • যদি প্রিমিয়াম পরিশোধের মেয়াদকালে ঋণ নেওয়া হয়, তাহলে সর্বোচ্চ ঋণের পরিমাণ সারেন্ডার ভ্যালুর ৯০% পর্যন্ত হতে পারে।
  • পেইড-আপ পলিসির ক্ষেত্রে ঋণের পরিমাণের ক্যাপ পরিশোধিত মূল্যের ৮০% পর্যন্ত হবে।

(একটি পেইড-আপ বীমা পলিসি হল যেখানে পলিসিধারক প্রিমিয়াম দেওয়া বন্ধ করে দিয়েও বীমা কভারেজ উপভোগ করতে পারেন। সেক্ষেত্রে তাঁর সাম অ্যাস্যুরডটি প্রদত্ত প্রিমিয়ামের পরিমানের উপর ভিত্তি করে নির্ধারিত হবে।)

  • লোন যদি প্রিমিয়াম পরিশোধের মেয়াদের পরে নেওয়া হয় তবে সেক্ষেত্রে ঋণের সর্বাধিক পরিমাণ এমনভাবে নির্ধারণ করা হয় যাতে বার্ষিক সুদের হারটি বার্ষিক সারভাইভাল বেনিফিটের ৫০% এর বেশি না হয় যা নীতির অধীনে প্রদেয় হতে পারে।

রিবেটসঃ

এই পলিসিতে প্রিমিয়াম পরিশোধের ধরণ ও বেসিক সাম অ্যাস্যুরডের (BSA) পরিমানের ওপর রিবেট বা ছাড় পাওয়া যায়। নিচে এই দুই ধরণের রিবেটের একটি তালিকা দেওয়া হলঃ

প্রিমিয়াম পরিশোধ ধরণের ওপর রিবেটঃ

বার্ষিকট্যাবুলার প্রিমিয়ামের ২%
অর্ধ-বার্ষিকট্যাবুলার প্রিমিয়ামের ১%
ত্রৈমাসিক, মাসিক (NACH) এবং বেতন কর্তনকোন ছাড় নেই

(বীমার ট্যাবুলার খরচ বলতে বোঝায় প্রিমিয়ামের খরচ যা পলিসিধারক বীমা কোম্পানিকে পরিশোধ করে।)

সাম অ্যাস্যুরডের ওপর রিবেটঃ

বেসিক সাম অ্যাস্যুরডরিবেট 
₹২,০০,০০০ – ₹৪,৭৫,০০০কোন ছাড় নেই
₹৫,০০,০০০ – ₹৯,৭৫,০০০১.২৫% BSA
₹১০,০০,০০০ – ₹২৪,৭৫,০০০১.৭৫% BSA
₹২৫,০০,০০০ এবং তার বেশি২.০০% BSA

ন্যাশনাল পেনশন সিস্টেম

আয়কর ছাড়ঃ

এই পলিসিতে ১৯৬৯ সালের আয়কর আইনের ধারা ৮০সি এবং ১০(১০ডি) এর অধীনে প্রিমিয়ামের পরিমাণ এবং ডেথ বেনিফিট এবং ম্যাচুরিটি পরিমাণের উপর কর ছাড়ের সুবিধা রয়েছে।

পেইড-আপ ভ্যালুঃ

LIC জীবন উমং পলিসির ক্ষেত্রে যদি লাইফ অ্যাসিওরড ২ বছরের জন্য প্রিমিয়াম পরিশোধ করে থাকেন কিন্তু পরে তা বন্ধ হয়ে যায়, তাহলে পলিসিটি পেড-আপ পলিসি হিসেবে চিহ্নিত হবে। সেক্ষেত্রে সাম অ্যাস্যুরডের পরিমাণ পরিশোধিত প্রিমিয়ামের ওপর নির্ভর করবে।

ডেথ বেনিফিটের ক্ষেত্রে পেইড-আপ সাম অ্যাস্যুরডের পরিমাণ হবে –

(প্রদত্ত প্রিমিয়ামের সংখ্যা / প্রিমিয়ামের মোট সংখ্যা) x সাম অ্যাস্যুরড অন ডেথ

ম্যাচুরিটির ক্ষেত্রে পেইড-আপ সাম অ্যাস্যুরডের পরিমাণ হবে –

(প্রদত্ত প্রিমিয়ামের সংখ্যা / প্রিমিয়ামের মোট সংখ্যা) x সাম অ্যাস্যুরড অন ম্যাচুরিটি

গ্রেস পিরিয়ডঃ

বার্ষিক বা অর্ধ-বার্ষিক বা ত্রৈমাসিক প্রিমিয়াম পরিশোধের ক্ষেত্রে ৩০ দিনের গ্রেস পিরিয়ড এবং মাসিক প্রিমিয়ামের ক্ষেত্রে ১৫ দিনের ছাড় দেওয়া হয়। সেই নির্দিষ্ট ছাড়ের দিনের মধ্যে প্রিমিয়াম পরিশোধ না করা হলে পলিসিটি বাতিল হয়ে যাবে।

যদি গ্রেস পিরিয়ডের মধ্যে প্রিমিয়াম পরিশোধের আগেই লাইফ অ্যাসিওরডের মৃত্যু হয়, তবে সেক্ষেত্রে পলিসিটি বজায় থাকবে এবং বকেয়া প্রিমিয়ামগুলি বাদ দিয়ে ডেথ বেনিফিট দেওয়া হবে।

রিভাইভাল বা পুনরুজ্জীবনঃ

পলিসিধারক প্রদত্ত গ্রেস সময়ের মধ্যে প্রিমিয়াম দিতে ব্যর্থ হলে, সেক্ষেত্রে পলিসিটি বাতিল হয়ে যাবে। এই পলিসিতে পলিসিধারক প্রথম বাকি থাকা প্রিমিয়ামের তারিখ থেকে পরপর ৫ বছরের মধ্যে পলিসিটি পুনরুজ্জীবিত করার সুযোগ পাবেন।

ফ্রি-লুক পিরিয়ডঃ

এলআইসি পলিসি শুরুর তারিখ থেকে ১৫ দিনের একটি ফ্রি লুক পিরিয়ড থাকে। পলিসির শর্তাবলীতে যদি পলিসি হোল্ডার অসন্তুষ্ট হন তবে এই সময়ের মধ্যে তিনি পলিসি বাতিল করতে পারেন, সেক্ষেত্রে জমা করা প্রিমিয়াম থেকে আনুপাতিক ঝুঁকির প্রিমিয়াম (বেস পলিসির জন্য এবং রাইডার যদি থাকে তার জন্য) কেটে নেওয়ার পরে পলিসিধারককে ফেরত দেওয়া হবে।

পলিসি সারেন্ডারঃ

পলিসি সারেন্ডার অর্থাৎ পলিসির মেয়াদ শেষ হওয়ার আগে পলিসিটির সম্পূর্ণ প্রত্যাহার বা সমাপ্তি। পলিসিধারক যদি পরপর দুই বছর প্রিমিয়াম প্রদান করে থাকেন তবে তারপর তিনি পলিসি সারেন্ডার করতে পারেন। পলিসি সারেন্ডার করার সময়, বীমা কোম্পানি বিশেষ সারেন্ডার মূল্য বা গ্যারান্টিযুক্ত সারেন্ডার মূল্য (যেটি বেশি হবে) প্রদান করবে।

এলআইসি জীবন উমং পলিসি ক্যালকুলেটর

এখানে পলিসিটির ভিন্ন সাম অ্যাস্যুরডের পরিমাণ এবং ভিন্ন পরিশোধ ধরণের ওপর বিচার করে দুটি ভিন্ন তালিকা দেওয়া হোল। পলিসিধারকের বয়সের ওপর নির্ভর করে প্রিমিয়ামের পরিমাণ সামান্য পরিবর্তিত হতে পারে। এক্ষেত্রে পলিসিধারকের বয়স ৩০ বছর ধরে মান নির্ণয় করা হোল।

নিম্নউল্লিখিত প্রিমিয়ামগুলিতে পণ্য ও পরিষেবা কর (GST) অন্তর্ভুক্ত করা হয়নি। সেক্ষেত্রে প্রথম পলিসি বছরের জন্য বর্তমান GST হার ৪.৫% এবং দ্বিতীয় বছর থেকে ২.২৫% অন্তর্ভুক্ত হবে৷

বেসিক সাম অ্যাস্যুরড ₹২ লক্ষ
প্রিমিয়ামের মেয়াদবার্ষিক অর্ধ-বার্ষিকত্রৈমাসিক মাসিক 
১৫ বছর₹১৫৭৩৯₹৭৯৫০₹৪০১৫₹১৩৩৮
২০ বছর₹১০৬৯২₹৫৪০০₹২৭২৮₹৯০৯
২৫ বছর₹৭৮৭৯₹৩৯৮০₹২০১০₹৬৭০
৩০ বছর₹৬২৮২₹৩১৭৩₹১৬০৩₹৫৩৪
বেসিক সাম অ্যাস্যুরড ₹৫ লক্ষ
প্রিমিয়ামের মেয়াদবার্ষিক অর্ধ-বার্ষিকত্রৈমাসিক মাসিক 
১৫ বছর₹৩৮৭২২₹১৯৫৬২₹৯৮৮১₹৩২৯৪
২০ বছর₹২৬১০৫₹১৩১৮৯₹৬৬৬৩₹২২২১
২৫ বছর₹১৯০৭৩₹৯৬৩৭₹৪৮৬৯₹১৬২৩
৩০ বছর₹১৫০৮০₹৭৬২০₹৩৮৫০₹১২৮৩

LIC জীবন উমং পলিসির উদাহরনঃ

এবার একটি উদাহরনের সাহায্যে দেখে নেওয়া যাক এই পলিসিটি থেকে আপনি মোট কতটা সুবিধা পেতে পারেন!

ধরুন আপনার,

বয়স = ৩৫ বছর

সাম অ্যাস্যুরড = ₹৫ লক্ষ

প্রিমিয়ামের মেয়াদ = ২০ বছর

পলিসি পিরিয়ড = ১০০-৩৫ = ৬৫ বছর

  • সেক্ষেত্রে ১ম বছর GST ৪.৫% মিলিয়ে আপনার বার্ষিক প্রিমিয়াম হবে (₹২৬৭৫৫ + ₹১২০৪) = ₹২৭৯৫৯।
  • ২য় বছর থেকে GST ২.২৫% মিলিয়ে আপনার বার্ষিক প্রিমিয়াম হবে (₹২৬৭৫৫ + ₹৬০২) = ₹২৭৩৫৭।
  • এতএব ২০ বছরে আপনার মোট প্রিমিয়াম হবে ₹২৭৯৫৯ + (₹২৭৩৫৭ x ১৯) = ₹৫,৪৭,৭৪২

এবার দেখে নেওয়া যাক আপনি ম্যাচুরিটিতে মোট কত রিটার্ন পাবেন!

  • আপনার ৫৫ বছর বয়স থেকে শুরু করে জীবিতকালে আপনি সর্বাধিক ১০০ বছর পর্যন্ত ৮% হারে অর্থাৎ বার্ষিক ₹৪০,০০০ টাকা করে মোট (₹৪০,০০০ x ৪৬) = ₹১৮,৪০,০০০ টাকা পাবেন।
  • আপনি সাম অ্যাস্যুরডের ₹৫ লক্ষ টাকা পাবেন।
  • এরসাথে আপনি “ভেস্টেড সিম্পল রিভিশনারি বোনাস” যা প্রতি বছর আপনার পলিসিতে জমা হয়, অর্থাৎ ‘সাম অ্যাস্যুরড / ১০০০ X পলিসি টার্ম X ভিএসআরবি রেট’ এক্ষেত্রে মোট ₹১৬,৯০,০০০ টাকা আপনি পাবেন।
  • এছাড়া “ফাইনাল অ্যাডিশনাল বোনাস” যা ১৫ বছর বা তার অধিক পলিসি টার্মের ক্ষেত্রে একবারই আপনাকে দেওয়া হয় অর্থাৎ ‘সাম অ্যাস্যুরড / ১০০০ X FAB রেট’ এক্ষেত্রে মোট ₹১৭,৭৫,০০০ টাকা পাবেন।
  • এই পলিসির ম্যাচুরিটি থেকে আপনি মোট ₹১৮,৪০,০০০ + ₹৫,০০,০০০ + ₹১৬,৯০,০০০ + ₹১৭,৭৫,০০০ = ₹৫৮,০৫,০০০ টাকা রিটার্ন পাবেন।

তবে বাস্তব ক্ষেত্রে ১০০ বছরের ম্যাচুরিটি উপভোগ করা পলিসিধারকের সংখ্যা খুব কমই দেখা যায়। সেক্ষেত্রে ডেথ বেনিফিটের সুবিধাগুলিও এবার দেখা নেওয়া যাক।

  • পলিসিধারকের যদি এই পলিসি নেওয়ার ৫ বছর পর মৃত্যু ঘটে থাকে তাহলে নমিনি পাবেন সাম অ্যাস্যুরড +  ভিএসআরবি মোট (₹৫,০০,০০০ + ₹১,৩০,০০০) =  ₹৬,৩০,০০০
  • ১৫ বছর পর মৃত্যু ঘটে থাকলে নমিনি পাবেন সাম অ্যাস্যুরড +  ভিএসআরবি + ফাইনাল অ্যাডিশনাল বোনাস মোট (₹৫,০০,০০০ + ₹৩,৯০,০০০ + ₹১০,০০০) =  ₹৯,০০,০০০
  • ৩০ বছর পর মৃত্যু ঘটে থাকলে নমিনি পাবেন সাম অ্যাস্যুরড +  ভিএসআরবি + ফাইনাল অ্যাডিশনাল বোনাস মোট (₹৫,০০,০০০ + ₹৭,৮০,০০০ + ₹৫,৫০,০০০) =  ₹১৮,৩০,০০০

এলআইসি জীবন উমং পলিসি সম্পর্কিত প্রশ্ন (FAQ)

জীবন উমং কি ধরনের বীমা?

LIC জীবন উমং পলিসি বাজারের ঝুঁকির সাথে যুক্ত নয় এবং এইটি এমন এক জীবন বীমা পরিকল্পনা যা পলিসিধারককে সারা জীবনের সুরক্ষা এবং লাভ উভয়ই প্রদান করে। এই প্ল্যানটি প্রিমিয়াম পরিশোধের পর থেকে ম্যাচুরিটি পর্যন্ত বার্ষিক রিটার্ন প্রদান করে এবং ম্যাচুরিটির পর সাম অ্যাস্যুরড এবং বোনাস মিলিয়ে বড় অঙ্কের রিটার্ন করে থাকে।

এলআইসি জীবন উমং পলিসির সুবিধাগুলি কী কী?

এই প্ল্যানটি পলিসি হোল্ডারের পরিবারকে আয় এবং সুরক্ষা দুটোই প্রদান করে থাকে। এই পলিসিতে প্রিমিয়াম দেওয়া সম্পূর্ণ হওয়ার পর থেকে আজীবন সর্বাধিক ১০০ বছর বয়স পর্যন্ত বার্ষিক ৮% হারে রিটার্ন ও লাইফ কভারেজ পাওয়া যায় এবং ম্যাচুরিটির পর আপনার সাম অ্যাস্যুরড এবং বোনাস মিলিয়ে বড় অঙ্কের রিটার্নও পাবেন। এছাড়া এই পলিসির প্রিমিয়াম, ধারা ‘৮০সি’ এর অধীনে আয়কর মুক্ত এবং ম্যাচুরিটির রিটার্ন আয়কর আইন ধারা ১০ডি(ডি) এর অধীনে সম্পূর্ণ করমুক্ত।

জীবন উমং পলিসি কি ৮% নিশ্চিত রিটার্ন দেয়?

এই পলিসির রিটার্ন, মার্কেটের ঝুঁকির সাথে যুক্ত নয় এবং এখানে আপনার প্রিমিয়াম পরিশোধের পর আপনি সাম অ্যাস্যুরডের ৮% হারে প্রতি বছর, আপনার সর্বাধিক ১০০ বছর বয়স পর্যন্ত এবং সাথে লাইফ কভারেজ পাবেন। পলিসিধারকের ১০০ বছর বয়সের ম্যাচুরিটিতে সাম অ্যাস্যুরড এবং বোনাস মিলিয়ে বড় অংক রিটার্ন পাওয়া যায়, অন্যথায় নমিনি বড় অংকের ডেথ বেনিফিট পাবেন।

LIC জীবন উমং পলিসি থেকে কি ঋণ নেওয়া যায়?

হ্যাঁ, নূন্যতম ২ বছরের প্রিমিয়াম দেওয়ার পর এই পলিসি থেকে ঋণ নেওয়া যেতে পারে। ঋণের পরিমাণ পরিশোধিত প্রিমিয়ামের অবস্থার ওপর নির্ভর করবে। সেক্ষেত্রে পলিসির সারেন্ডার ভ্যালুর ৮০% – ৯০% পর্যন্ত ঋণ নেওয়া যেতে পারে।

জীবন উমং পলিসি কি মাসিক রিটার্ন দেয়?

প্রিমিয়াম পরিশোধের পরে পলিসিধারক, মূল বীমা রাশির ৮% হারে অর্থ ম্যাচুরিটি পর্যন্ত প্রতি বছর পাবেন। সেই ম্যাচুরিটির অর্থ বা ডেথ বেনিফিট আপনি ৫, ১০, বা ১৫ বছরের মাসিক কিস্তি রূপে বেছে নিতে পারেন।

জীবন উমং পলিসি কি করমুক্ত?

এই পলিসির প্রিমিয়ামগুলি ১৯৬১ এর আয়কর আইন, ধারা 80C-এর অধীনে আয়কর থেকে ছাড় দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও, প্রাপ্ত মেয়াদের পরিমাণও ধারা 10(10D) এর অধীনে সম্পূর্ণ করমুক্ত রাখা হয়েছে।

এলআইসি জীবন উমং পলিসির কি খামতি আছে?

এই পলিসিতে প্রিমিয়ামের ওপর আয়কর ছাড় থাকলেও, পলিসিধারককে জিএসটি বা ট্যাক্সের জন্য অতিরিক্ত অর্থ প্রদান করতে হয়। ফলস্বরূপ রিটার্নের পরিমাণ সেক্ষেত্রে কম হয়ে থাকে।

Leave a Comment