জাতীয় পেনশন প্রকল্প বা এনপিএস নতুন নিয়ম ও সুবিধা|National Pension Scheme in Bengali

Updated on February 25th, 2024 ||

জাতীয় পেনশন প্রকল্প, যা আগে ‘নতুন পেনশন স্কিম’ নামে পরিচিত ছিল তা হোল ভারতের সকল নাগরিকের জন্য একটি উন্মুক্ত পেনশন ব্যবস্থা। এই স্কিমটি ১লা জানুয়ারী ২০০৪ সালে প্রথম কার্যকর করা হয়েছিল এবং তখন কেন্দ্রীয় সরকারী কর্মচারীদের জন্য তা বাধ্যতামূলক করা হয়। পরবর্তীকালে ২০০৯ সালে এটি সমস্ত ভারতীয় নাগরিকদের জন্য উন্মুক্ত করা হয়েছে।

পূর্বের পেনশনের ব্যবস্থা যা শুধু সরকারী কর্মচারীদের জন্যই প্রযোজ্য ছিল, সেই ব্যবস্থাকে পরিবর্তন করে অবদান ভিত্তিক পেনশন ব্যবস্থা গড়ে তোলা হয়েছে। নাগরিকদের মধ্যে অবসর গ্রহণের জন্য সঞ্চয়ের অভ্যাস গড়ে তোলার ক্ষেত্রে NPS এর গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। এই স্কিমটি ‘পেনশন ফান্ড রেগুলেটরি অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট অথরিটি’ (PFRDA) দ্বারা পরিচালিত হয়ে থাকে।

Table of Contents

এনপিএস কি?

NPS হোল সশস্ত্র বাহিনীতে কর্মরত ব্যাক্তি ছাড়া সরকারী, বেসরকারী, এমনকি অসংগঠিত ক্ষেত্রের সকল কর্মচারীদের জন্য করা একটি পেনশন প্ল্যান। এই স্কিমে, গ্রাহকরা ন্যূনতম মাসিক কিস্তি ৫০০ টাকা অথবা বছরে এককভাবে ৬,০০০ টাকা অবদান রাখতে পারেন৷ 

এনপিএস তার গ্রাহকদের অবদানকে বিভিন্ন বাজার-সংযুক্ত উপকরণ যেমন ইক্যুইটি এবং ঋণে বিনিয়োগ করে এবং চূড়ান্ত পেনশনের পরিমাণ এই বিনিয়োগের কর্মক্ষমতার উপর নির্ভর করে। এই স্কিমে সুদের হার হোল ৯% থেকে ১২%।

ন্যাশনাল পেনশন স্কিম মানুষের কর্মসংস্থানের সময় নিয়মিত একটি পেনশন অ্যাকাউন্টে বিনিয়োগ করতে উৎসাহিত করে থাকে। অবসর গ্রহণের আগে গ্রাহকের করা অবদান এবং বাজার-সংযুক্ত রিটার্নের মাধ্যমে কর্পাস বৃদ্ধি হয়ে জমা হতে থাকে। গ্রাহকরা অবসর গ্রহণের পরে কর্পাসের সর্বাধিক ৬০ শতাংশ তুলে নিতে পারেন এবং অবশিষ্ট ৪০ শতাংশ অর্থ গ্রাহক মাসিক পেনশন হিসাবে পাবেন।

পূর্বে NPS সুবিধা শুধুমাত্র কেন্দ্রীয় সরকারের কর্মচারীদের জন্য প্রযোজ্য ছিল। এখন, PFRDA সমস্ত ভারতীয় নাগরিকদের জন্য এটি উন্মুক্ত করেছে এবং ১/১/২০০৪ এর পরে যোগদানকারী কেন্দ্রীয় সরকারী কর্মচারীদের ক্ষেত্রে NPS বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। 

national pension system cover post jojona

এনপিএস সুবিধা

রিটার্ন/সুদঃ

  • এনপিএস স্কিমের প্রতি অবদানের একটি অংশ ইক্যুইটিতে বিনিয়োগ করা হয়, যা পিপিএফের মতো অন্যান্য ট্যাক্স-সঞ্চয় বিনিয়োগগুলির তুলনায় উচ্চতর সুদ প্রদান করে। এই স্কিমটি এক দশকেরও বেশি সময় ধরে কার্যকর রয়েছে এবং এখনও পর্যন্ত ৯% থেকে ১২% বার্ষিক রিটার্ন প্রদান করেছে।

কর ছাড়ঃ

  • এনপিএস স্কিমে বিনিয়োগ করার একটি গুরুত্বপূর্ণ কারণ হোল কর ছাড়ের সুবিধা। এখানে আয়কর আইনের ধারা 80CCD(1) অনুযায়ী বেতনের বেসিক ও ডিএ মিলিয়ে সর্বোচ্চ ১০% ছাড় এবং ধারা 80CCE অনুযায়ী সর্বোচ্চ ১.৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত কর ছাড় দেওয়া হয়। অধিকন্তু, 80CCD(1B) অনুযায়ী গ্রাহকরা ৫০,০০০ টাকার অতিরিক্ত কর ছাড়ের সুবিধা পাবেন অর্থাৎ মোট ২ লক্ষ টাকা ছাড় পাওয়া যায়।
  • এছাড়া ধারা 80CCE এর ১.৫ লক্ষ টাকা ছাড়ের ওপরেও ধারা 80CCD(2) অনুযায়ী কোন বেতনভোগী ব্যক্তির নিয়োগকর্তার যদি NPS এ অবদান থাকে তবে বেতনের বেসিক ও ডিএ মিলিয়ে সর্বোচ্চ ১০% ছাড় এবং সরকারী কর্মচারীদের ক্ষেত্রে বেসিক ও ডিএ মিলিয়ে বেতনের সর্বোচ্চ ১৪% আয়কর ছাড়ের সুবিধা রয়েছে।
  • স্ব-প্রতিষ্ঠিত ব্যক্তির ক্ষেত্রে ধারা 80CCD(1) এর অধীনে মোট আয়ের ২০% পর্যন্ত কর ছাড় ও ধারা 80CCE এর অধীনে মোট ১.৫০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত কর ছাড় পাবেন।
  • যদি পরিস্থিতি সাপেক্ষে স্ব-অবদানের কিছু অংশ প্রত্যাহার বা তুলে নেওয়ার প্রয়োজন হয় তবে ধারা 10(12B) এর অধীনে PFRDA নির্ধারিত মানদণ্ড অনুযায়ী ২৫% পর্যন্ত পরিমাণ কর ছাড়ের জন্য যোগ্য।
  • ৬০ বছর বয়সে পৌঁছানো (ধারা 10) বা চাকরির মেয়াদ উত্তীর্ণ (12A) হওয়ার পরে অর্জিত পেনশন ফান্ডের ৬০% এককালীন উত্তোলনের ক্ষেত্রে কর ছাড় পাওয়া যায়।

জাতীয় পেনশন প্রকল্পের বিবরণ এবং বৈশিষ্ট্য

জাতীয় পেনশন প্রকল্পের অ্যাকাউন্ট খোলার পরে প্রতিটি গ্রাহককে একটি স্থায়ী অবসর অ্যাকাউন্ট নম্বর (পার্মানেন্ট রিটায়ারমেন্ট একাউন্ট নম্বর) বা PRAN জারি করা হয়। গ্রাহককের মোট অবদান এবং তহবিলের সমস্ত হিসাব রক্ষ্যার কাজেই এই PRAN ব্যবহার করা হয়।

NPS-এর অধীনে গ্রাহকরা দুটি অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে বিনিয়োগ করতে পারেন। সেগুলি হল যথাক্রমে টায়ার ১ এবং টায়ার ২। প্রথমটি ডিফল্ট অ্যাকাউন্ট এবং পরবর্তীটি হোল একটি ঐচ্ছিক সংযোজন।

টায়ার ১ অ্যাকাউন্টঃ এই অ্যাকাউন্টটি ধারা 80C-এর অধীনে বার্ষিক ১.৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত এবং ধারা 80CCD (1B) এর অধীনে বার্ষিক ৫০,০০০ টাকা পর্যন্ত কর ছাড় দিয়ে থাকে। গ্রাহক সর্বনিম্ন ৫০০ টাকা জমা দিয়ে এই অ্যাকাউন্ট খুলতে পারেন।

এটি একটি স্থায়ী অবসর অ্যাকাউন্ট এবং এক্ষেত্রে আপনি মেয়াদপূর্তির আগে শুধুমাত্র ২৫% টাকা তুলতে পারবেন তবে সেক্ষেত্রে কিছু বাধ্যবাদকতা আছে যেমনঃ

  • আংশিক প্রত্যাহারের আবেদন করার জন্য ন্যূনতম ১০ বছর পর্যন্ত অবদান রাখতে হবে।
  • এছাড়াও, দু-বার টাকা তোলার মধ্যে ন্যূনতম ৫ বছরের ব্যবধান থাকতে হবে।

মেয়াদপূর্তির পর অর্থাৎ ৬০ বছর বয়সে কর্পাসের ৬০% উত্তোলন করতে পারবেন এবং সেটি সম্পূর্ণ কর মুক্ত। বাকি ৪০% আপনাকে মাসিক পেনশনের জন্য অবশ্যই জমা রাখতে হবে।

টায়ার ২ অ্যাকাউন্টঃ এটি একটি স্বেচ্ছা-অবসরণ এবং সাথে সঞ্চয় অ্যাকাউন্টও বটে। তবে গ্রাহকের টায়ার ১ অ্যাকাউন্ট থাকলে তবেই এই অ্যাকাউন্টটি খোলা যেতে পারে। গ্রাহকরা সর্বনিম্ন ২৫০ টাকা দিয়ে এই অ্যাকাউন্ট খুলতে পারেন এবং তাদের সুবিধা অনুযায়ী যেকোনো সময় এই অ্যাকাউন্টে বিনিয়োগ বা উত্তোলন করতে পারবেন। তবে বেসরকারী কর্মচারী বা স্ব-নিযুক্ত ব্যক্তিদের জন্য এই অ্যাকাউন্টে কোনো কর ছাড় নেই।

বিষয়টায়ার ১ অ্যাকাউন্টটায়ার ২ অ্যাকাউন্ট
স্ট্যাটাসডিফল্টঐচ্ছিক
যোগ্যতা১৮-৭০ বছরের মধ্যে যে কোন ভারতীয়একটি টায়ার ১ অ্যাকাউন্ট থাকা আবশ্যিক
ধরণসম্পূর্ণ রূপে একটি পেনশন প্ল্যানসঞ্চয় এবং বিনিয়োগের প্ল্যান
উত্তোলনবিধি অনুযায়ী ২৫% উত্তোলন করা যায়ইচ্ছা মত উত্তোলন করা যায়
কর ছাড়বার্ষিক ২ লক্ষ টাকা পর্যন্তসরকারি কর্মচারীদের জন্য ১.৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত
NPS অ্যাকাউন্ট খোলার জন্য ন্যূনতম অবদান৫০০ টাকা১০০০ টাকা
বার্ষিক ন্যূনতম অবদান১০০০ টাকাকোন ন্যূনতম ব্যালেন্স প্রয়োজন নেই
অবদান প্রতি ন্যূনতম পরিমাণ৫০০ টাকা২৫০ টাকা
সর্বাধিক NPS অবদানকোন সীমা নেইকোন সীমা নেই

অটল পেনশন যোজনা

এনপিএস সম্পদের শ্রেণী

এনপিএস সম্পদের চারটি শ্রেণী রয়েছে, যথাক্রমেঃ

  • অ্যাসেট ক্লাস ই ইক্যুইটি বা স্টকগুলিতে বিনিয়োগ করে। 
  • অ্যাসেট ক্লাস সি কর্পোরেট বন্ডে বিনিয়োগ করে। 
  • অ্যাসেট ক্লাস জি কেন্দ্রীয় এবং রাজ্য সরকারের বন্ডে বিনিয়োগ করে।
  • অ্যাসেট ক্লাস এ রিয়েল এস্টেট ইনভেস্টমেন্ট ট্রাস্ট (REITs) এবং ইনফ্রাস্ট্রাকচার ইনভেস্টমেন্ট ট্রাস্ট (InVITs) এর মতো বিকল্প সম্পদগুলিতে বিনিয়োগ করে।

এনপিএস সম্পদের পছন্দ অনুসারে বিনিয়োগ 

ন্যাশনাল পেনশন স্কিমে আপনি আপনার সম্পদ ‘অ্যাক্টিভ চয়েস’ এবং ‘অটো চয়েস’, এর মধ্যে কোনটি অনুসারে বিনিয়োগ করতে চান তা পছন্দ করতে পারেন। বাজার সংক্রান্ত বিনিয়োগ সম্পর্কে ভাল জ্ঞান ও অভিজ্ঞতা থাকলে আপনি ‘অ্যাক্টিভ চয়েস’ নিতে পারেন অন্যথায় আপনি ‘অটো চয়েস’ বাছতে পারেন।

অ্যাক্টিভ চয়েসঃ এই ক্ষেত্রে গ্রাহকরা তাদের NPS ফান্ড কোন খাতে বিনিয়োগ করবেন সে ব্যাপারে সম্পূর্ণ স্বাধীন সিদ্ধান্ত নিতে পারেন। সেক্ষেত্রে, অ্যাসেট ক্লাস ই বা ইক্যুইটির জন্য ৫০ বছর বয়স পর্যন্ত সর্বাধিক ৭৫% ক্যাপ রয়েছে এবং বাকি অংশ অন্যান্য সম্পদ শ্রেণী যেমন ক্লাস সি বা কর্পোরেট ডেট সিকিউরিটিজ এবং ক্লাস জি বা সরকারি সিকিউরিটিজে বিভিন্ন শতাংশে বরাদ্দ করতে পারবেন।

NPS এর নিয়ম অনুযায়ী ৫০ বছর বয়সের পর থেকে ৬০ বছর পর্যন্ত প্রতি বছর ইক্যুইটির সর্বাধিক ক্যাপ ২.৫% করে কমে ক্রমশ ৫০% এ পৌছায়।

অ্যাক্টিভ চয়েসের ক্ষেত্রে গ্রাহকরা তাদের বিনিয়োগের বিকল্পগুলি পরিবর্তন করার পাশাপাশি প্রয়োজন অনুসারে তাদের ফান্ড ব্যবস্থাপকের পরিবর্তনও করতে পারবেন তবে সেক্ষেত্রে নির্দিষ্ট সীমাবদ্ধতা রয়েছে।

অটো চয়েসঃ এটি গ্রাহকদের সুবিধার জন্য করা একটি ডিফল্ট বিকল্প। এক্ষেত্রে ফান্ডের বিনিয়োগগুলি গ্রাহকদের বয়স অনুসারে, নিযুক্ত ব্যবস্থাপক দ্বারাই স্বয়ংক্রিয়ভাবে পরিচালিত হয়। গ্রাহকদের বয়স বাড়ার সাথে সাথে ফান্ডটি স্বয়ংক্রিয়ভাবে ইক্যুইটি এবং ঋণের বরাদ্দের ভারসাম্য বজায় রাখে।

এনপিএস ফান্ড ম্যানেজার

এনপিএস ফান্ড ম্যানেজার হোল কোন ব্যক্তি বা সংস্থা, যে ফান্ডের লক্ষ্য অনুযায়ী কোনো বিনিয়োগ যেমন মিউচুয়াল ফান্ড, পেনশন ফান্ড, বা বীমা ফান্ড সংক্রান্ত বিনিয়োগের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেয়। এনপিএস অ্যাকাউন্ট খোলার সময় একজন ফান্ড ম্যানেজার বেছে নেওয়া প্রয়োজন।

PFRDA দ্বারা নিযুক্ত ফান্ড ম্যানেজারের তালিকা নিচে দেওয়া হলঃ

সরকারি খাতের পেনশন ফান্ড

  • SBI পেনশন ফান্ড প্রাইভেট লিমিটেড
  • LIC পেনশন ফান্ড লিমিটেড
  • UTI রিটায়ারমেন্ট সলিউশন লিমিটেড

বেসরকারী খাতের পেনশন ফান্ড

  • HDFC পেনশন ম্যানেজমেন্ট কোং লিমিটেড
  • ICICI প্রুডেনশিয়াল পেনশন ফান্ড ম্যানেজমেন্ট কোং লিমিটেড
  • কোটাক মাহিন্দ্রা পেনশন ফান্ড লিমিটেড
  • আদিত্য বিড়লা সানলাইফ পেনশন ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড
  • টাটা পেনশন ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড
  • ম্যাক্স লাইফ পেনশন ফান্ড ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড
  • অ্যাক্সিস পেনশন ফান্ড ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড

এনপিএস রিটার্ন

এনপিএস রিটার্ন বাজারের সাথে যুক্ত তাই সুদের কোন নির্দিষ্ট হার থাকে না। এক্ষেত্রে ফান্ডের অর্থ বিভিন্ন সিকিউরিটিজে বিনিয়োগ করা হয় বলে এটি মার্কেটের অবস্থার ওপর নির্ভর করে। এনপিএস গ্রাহকদের অবদান ইকুইটি, সরকারী বন্ড, কর্পোরেট বন্ড এবং বিকল্প সম্পদের মতো ৪টি ভিন্ন সম্পদ শ্রেণীতে বিনিয়োগ করে থাকে।

ন্যাশনাল পেনশন স্কিমের যোগ্যতা

NPS-এর জন্য নিম্নলিখিত যোগ্যতার মানদণ্ডগুলি পূরণ করতে হবেঃ 

  • একজন ভারতীয় নাগরিক (আবাসিক বা অনাবাসী/NRI) হতে হবে।
  • আবেদনকারীর বয়স ১৮-৭০ বছরের মধ্যে হতে হবে।
  • আবেদনপত্রের কেওয়াইসি নিয়মগুলি মানতে হবে৷
  • NPS হল একটি স্বতন্ত্র পেনশন অ্যাকাউন্ট, তাই এটি তৃতীয় ব্যক্তির পক্ষে খোলা যাবে না।
  • ভারতের বিদেশী নাগরিক (ওসিআই), ভারতীয় বংশোদ্ভূত ব্যক্তি (পিআইও) এবং হিন্দু অবিভক্ত পরিবার (এইচইউএফ) NPS-এর সদস্যতা পাওয়ার যোগ্য নয়।

এল আই সি জীবন উমং পলিসি

জাতীয় পেনশন স্কিম রেজিষ্ট্রেশন

আপনি অনলাইন এবং অফলাইন উভয় ভাবেই একটি এনপিএস অ্যাকাউন্ট খুলতে পারেন। আপনার যদি আধার কার্ড, প্যান কার্ড এবং ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থাকে এবং আপনি যদি আপনার অ্যাকাউন্টটি প্যান, আধার এবং মোবাইল নম্বরের সাথে লিঙ্ক করেন তবে আপনি অনলাইনে NPS অ্যাকাউন্ট খুলতে পারেন।

অনলাইন প্রক্রিয়াঃ

নিম্নলিখিত উপায় আপনি অনলাইনে আবেদন করতে পারবেনঃ

  • আপনাকে ন্যাশনাল পেনশন সিস্টেমের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট eNPS পোর্টালে যেতে হবে।
  • এরপর আপনাকে ‘ন্যাশনাল পেনশন সিস্টেম’ এ ক্লিক করতে হবে।
national pension system online
  • একটি পপ্‌ আপ খুলবে যেখানে আপনি ‘রেজিস্ট্রেশন’ বাটন দেখতে পাবেন, সেটিতে ক্লিক করলে আপনি নতুন রেজিস্ট্রেশনের ফর্মটি দেখতে পাবেন।
  • ফর্মের রেজিস্ট্রেশনটি আপনি আধার, প্যান কার্ড, সিকেওয়াসি নাম্বার বা ডিজি লকার ডকুমেন্টের সাথে করতে পারবেন।
  • এরপর আপনি ‘ব্যক্তিগত গ্রাহক’, ‘কর্পোরেট গ্রাহক’ না ‘সরকারি কর্মচারী’ তা উল্লেখ করতে হবে।
  • আপনি ‘ভারতের নাগরিক’ বা ‘ভারতের অনাবাসী (NRI)’ অথবা ‘ভারতের বিদেশী নাগরিক (OCI)’ তা উল্লেখ করবেন।
  • আপনি কি ধরনের অ্যাকাউন্ট করতে চান, শুধু টায়ার ১ না টায়ার ১ এবং টায়ার ২ একসাথে তা উল্লেখ করুন।
  • এরপর আপনি কিভাবে NPS সম্পর্কে শুনেছেন তা উল্লেখ করবেন। এটি তাদের কার্য পরিকল্পনা তৈরি করতে সাহায্য করবে।
  • আপনি কোন ডকুমেন্টস দিতে চান, আধার, ভার্চুয়াল আইডি না অফলাইন কেওয়াইসি ফাইল আপলোড করতে চান সেটি উল্লেখ করবেন।
  • আধার নম্বর লিখে ‘Generate OTP’ (ওয়ান টাইম পাসওয়ার্ড) ক্লিক করলেই নিবন্ধিত মোবাইল নম্বরে একটি ওটিপি যাবে।
online subscriber registration
  • সেই ওটিপি নাম্বারটি লিখে ‘Continue’ তে ক্লিক করলেই আপনি ‘কাস্টমার রেজিস্ট্রেশন’ ফর্মের পেজে পৌছাবেন।
  • এই পেজে মোট ৬টি ধাপ আছে। প্রথমে সমস্ত ব্যাক্তিগত বিবরণ প্রদান করার পরে ‘Generate Acknowledgement Number’ এ ক্লিক করতে হবে। এই নম্বরটি গুরুত্বপূর্ণ, ভবিষ্যতে রেফারেন্সের জন্য সংরক্ষণ করে রাখবেন। যদি কোনো কারণে রেজিস্ট্রেশনে কোনরকম অসুবিধে হয় তাহলে এই নম্বরটি পরে ব্যবহার করা যেতে পারে।
subscriber registration personal details
  • এরপর আপনি ‘Contact Details’ এ ক্লিক করে আপনার যোগাযোগের সমস্ত তথ্য যেমন ঠিকানা, ল্যান্ডমার্ক, পিন কোড ইত্যাদি উল্লেখ করবেন এবং ‘Save & Proceed’ এ ক্লিক করবেন।
  • আপনাকে ‘Bank & Other Details’ এ আপনার পেশার বিবরণ, আয়ের মাত্রা এবং ব্যাঙ্কের তথ্য যেমন অ্যাকাউন্ট নাম্বার, IFS কোড, ব্যাঙ্কের নাম, শাখার নাম ইত্যাদি প্রদান করতে হবে।
  • ‘Nomination Details’ পেজে আপনাকে নমিনী সম্পর্কিত যাবতীয় বিবরণ দিতে হবে।
  • এরপর ‘Documents Upload’ পেজে একটি বাতিল চেকের স্ক্যান করা ছবি আপলোড করতে হবে। তবে ছবির সাইজ যেন ৪kb থেকে ২mb এর মধ্যে হয় তা খেয়াল রাখতে হবে।
  • তারপরের ট্যাবটিতে আপনার সই করা কাগজের স্ক্যান করা ছবি আপলোড করতে হবে। ‘সেভ’ বাটনে ক্লিক করার পর আপনি পুনরায় প্রথম পেজে গিয়ে সমস্ত তথ্য মিলিয়ে নিতে পারেন।
  • এরপর ‘Payment Details’ পেজে যথাযত অবদানের পরিমাণ লিখে ‘Confirm Payment’ এ ক্লিক করতে হবে।
  • পেমেন্ট সম্পূর্ণ হওয়ার পর আপনার অ্যাকাউন্টটি তৈরি হবে এবং আপনাকে একটি ‘Permanent Retirement Account Number (PRAN)’ দেওয়া হবে যেটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এই নাম্বারটি আপনি লিখে সংরক্ষণ করে রাখবেন।
  • এরপর নিচে ‘Download Registration Form/eSign’ এ ক্লিক করে আধার নাম্বার লিখে ওটিপি ভ্যারিফিকেশন করলেই আপনার রেজিস্ট্রেশনের কাজটি সম্পন্ন হবে।
esign subscriber registration form
  • এখন আপনি ‘হোম’ পেজে গিয়ে PRAN এর সাহায্যে লগইন করে সম্পূর্ণ পোর্টালটি ব্যাবহার করতে পারবেন।

অফলাইন প্রক্রিয়াঃ

অফলাইনে এনপিএস অ্যাকাউন্ট খোলার জন্য আপনাকে PFRDA-এর অধীনস্ত নিকটতম পয়েন্ট অফ প্রেজেন্সে (POPs) অর্থাৎ নির্দিষ্ট ব্যাঙ্ক বা কোন আর্থিক প্রতিষ্ঠানে যেতে হবে। সেখান থেকে একটি NPS Form সংগ্রহ করে তা যথাযত পূরণ করে এবং KYC নথিগুলি সংযুক্ত করে জমা করুন। আপনার যদি ইতিমধ্যেই সেই ব্যাঙ্কের সাথে কেওয়াইসি হয়ে গিয়ে থাকে তাহলে পুনরায় নথি দেওয়ার দরকার নেই।

আপনাকে এরপর অ্যাকাউন্টের প্রাথমিক অবদান (৫০০, ২৫০ টাকা মাসিক বা বার্ষিক ১০০০ -এর কম নয়) জমা করতে হবে। সেই ব্যাঙ্ক বা আর্থিক প্রতিষ্ঠান আপনাকে একটি PRAN অর্থাৎ একটি স্থায়ী অবসরের অ্যাকাউন্ট নম্বর ইস্যু করবে।

এরপর আপনাকে সিল করা ‘ওয়েলকাম কিট’ দেওয়া হবে যার মধ্যে আপনার PRAN ও পাসওয়ার্ড থাকবে যা আপনার অ্যাকাউন্ট পরিচালনা করতে সহায়তা করবে৷ অফলাইন রেজিস্ট্রেশন বাবদ আপনাকে ₹১২৫/- টাকা দিতে হবে।

কিভাবে আপনি এনপিএস অ্যাকাউন্টে প্রথমবার লগইন করবেন?

প্রথমবার লগইন করার জন্য নিম্নলিখিত পদ্ধতি অবলম্বন করুনঃ

  • এনপিএস অ্যাকাউন্টে লগ ইন করার জন্য, আপনার ১২ সংখ্যার স্থায়ী অবসর অ্যাকাউন্ট নম্বর (PRAN) প্রয়োজন হবে।
  • প্রথমে আপনাকে এনপিএস এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে যেতে হবে এবং ‘IPIN Reset’ এ ক্লিক করতে হবে।
nps reset ipin
  • আপনার PRAN, জন্ম তারিখ, নতুন পাসওয়ার্ড, নিশ্চিত পাসওয়ার্ড এবং ক্যাপচা লিখে সাবমিট বাটনে ক্লিক করুন।
  • OTP ভ্যারিফিকেশনের পর আপনার একটি IPIN তৈরি হবে যা আপনি NSDL পোর্টালে লগ ইন করার জন্য ব্যবহার করতে পারবেন।
  • এবার আপনি NPS এর হোম পেজে গিয়ে ‘Login with PRAN/IPIN’ তে ক্লিক করুন এবং User ID স্থানে PRAN এবং আপনার তৈরি করা পাসওয়ার্ডটি দিয়ে আপনি লগইন করতে পারবেন।

এনপিএস এবং অন্যান্য ট্যাক্স সেভিং ইনভেস্টমেন্টের তুলনা

NPS ছাড়া অন্যান্য জনপ্রিয় ট্যাক্স সেভিং ইনভেস্টমেন্টগুলি হল পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ড (PPF), ইক্যুইটি লিঙ্কড সেভিংস স্কিম (ELSS), এবং ট্যাক্স-সেভিং ফিক্সড ডিপোজিট (FDs)। 

এবারে এনপিএস এবং অন্যান্য কর-সঞ্চয়কারী উপকরণগুলির মধ্যে তুলনাটি দেখে নেওয়া যাক।

বিনিয়োগসুদের হারলক-ইন পিরিয়ডঝুঁকি
NPS৯%-১২%অবসর পর্যন্তবাজার সংক্রান্ত ঝুঁকি
ELSS১০%-১৫%৩ বছরবাজার সংক্রান্ত ঝুঁকি
PPF৭.১%১৫ বছরঝুঁকিমুক্ত
FD৫%-৭%৫ বছরঝুঁকিমুক্ত

ট্যাক্স সেভিং ইনভেস্টমেন্টগুলির মধ্যে তুলনায় এটা বলা সম্ভব যে NPS অবশ্যই PPF বা FD থেকে বেশি আয় দিতে পারে।

এনপিএস সম্পর্কিত প্রশ্ন (FAQ)

NPS এর লক-ইন পিরিয়ড কত?

এনপিএস-এ ট্যাক্স মুক্ত আংশিক প্রত্যাহারের ক্ষেত্রে রয়েছে ৩ বছরের লক-ইন পিরিয়ড। তারপর আপনি বিনিয়োগ করা মোট পরিমাণের সর্বাধিক ২৫% প্রত্যাহার করতে পারবেন।

এনপিএস থেকে কতবার প্রত্যাহার করতে পারা যায়?

একজন বিনিয়োগকারী আংশিক এনপিএস অকাল প্রত্যাহারের জন্য পুরো মেয়াদকালে মোট ৩ বার আবেদন করতে পারেন।

NPS প্রত্যাহার কি করমুক্ত?

NPS অ্যাকাউন্টের আংশিক প্রত্যাহারের ক্ষেত্রে ব্যক্তির অবদানের ২৫% আয়কর থেকে ছাড় দেওয়া হয়। অবশিষ্টাংশ ‘অন্যান্য উৎস থেকে আয়’ রূপে কর ধার্য হয়।

২০২৩ সালে এনপিএস প্রত্যাহারের নতুন নিয়ম কি?

১লা জানুয়ারী, ২০২৩ থেকে সরকারী গ্রাহকরা আর স্ব-ঘোষণার মাধ্যমে জাতীয় পেনশন প্রকল্প (এনপিএস) থেকে অনলাইন আংশিক উত্তোলনের সুবিধা গ্রহণ করতে পারবেন না।

সরকার কি এনপিএস অ্যাকাউন্টে অবদান যুক্ত করে?

এনপিএস -এর অবদান বিভিন্ন সিকিউরিটিজ রূপে বাজারে বিনিয়োগ করা হয় এবং লভ্যাংশ থেকে গ্রাহকদের উচ্চ হারে সুদ দেওয়া হয় তাই এটি বাজারের অবস্থার ওপর নির্ভরশীল, তবে সরকার NPS অ্যাকাউন্টে কোন রকম অবদান যুক্ত করে না।

NPS এর জন্য কারা যোগ্য নয়?

কেন্দ্রীয় সরকারের ১লা জানুয়ারী ২০০৪ সালে চালু হওয়া জাতীয় পেনশন সিস্টেমে (NPS) সশস্ত্র বাহিনী যেমন সেনা, নৌ ও বিমান বাহিনী ছাড়া সকলেই এই সুবিধা গ্রহণ করতে পারেন।

এনপিএস থেকে কত মাসিক পেনশন পাওয়া যাবে?

এনপিএস এর মাসিক পেনশনের পরিমাণ বিভিন্ন বিষয়ের উপর নির্ভর করে, যেমন অবদানের পরিমাণ, বিনিয়োগের সময়কাল এবং বিনিয়োগ করা সম্পদ শ্রেণীর উপর।

Leave a Comment